দীর্ঘ অসুস্থতার পর মারা গেলেন লগানের বর্ষীয়াণ এই অভিনেতা

লাগান ছবির সেই বয়স্ক উইকেট কিপার, যিনি ছবির নায়িকা গ্রেসি সিংহের বাবা হয়েছিলেন, বর্ষীয়াণ সেই অভিনেতা শ্রী বল্লভ ব্যাস গতকাল জয়পুরে নিজের বাড়িতে মারা গিয়েছেন। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি।

ষাটের মত ছবি করেছেন শ্রী বল্লভ, সঙ্গে বহু টিভি শো। লগানে উইকেট কিপারের চরিত্র করেন, আবার সর্দারে মহম্মদ আলি জিন্নার চরিত্র। এছাড়া তাঁকে দেখা গিয়েছে সরফারোশ, শূল ও দিল বোলে হাড়িপ্পা ছবিতে। মূলত ভিলেনের ভূমিকায় অভিনয় করতেন তিনি।

ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামার এই প্রাক্তন ছাত্র মারা গিয়েছেন গতকাল, সকাল সাড়ে নটা নাগাদ। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

২০০৮-এ গুজরাতে একটি ছবির শ্যুটিং করার সময় ব্রেন স্ট্রোক হয় শ্রী বল্লভের, সঙ্গে প্যারালিটিক অ্যাটাক। রাত্রে বাথরুমের মধ্যে পড়ে যান, সকালে উদ্ধার করা হয় রক্তাক্ত অবস্থায়। অস্ত্রোপচার হয় কিন্তু প্যারালাইজড হয়ে যান তখন থেকে। মুম্বইয়ে চিকিৎসার খরচ জোগাতে না পেরে তাঁকে জয়শলমীর নিয়ে আসে তাঁর পরিবার, সেখান থেকে জয়পুর।

তাঁর চিকিৎসার জন্য স্ত্রী শোভা সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্টস অ্যাসোসিয়েশনের দ্বারস্থ হন আর্থিক সাহায্য চেয়ে। কিন্তু সেখান থেকে তাঁকে দেওয়া হয় মাত্র ১০,০০০ টাকা। শ্রী বল্লভের শারীরিক অবস্থার কথা শুনে সংগঠনের তৎকালীন সহ সভাপতি গজেন্দ্র চৌহান ৫০,০০০ টাকা দিতে চান। কিন্তু দুটি অনুদানই প্রত্যাখ্যান করেন শোভা। তবে মনোজ বাজপেয়ী, ইরফান খান ও আমির খান আর্থিক সাহায্য করেন তাঁদের।