‘জনগণের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলে পুলিশকে নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে হবে’

জনগণের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলে নিরপেক্ষভাবে কাজ করে যাওয়ার জন্য পুলিশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আবদুল হামিদ বলেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, সাফল্যের এ ধারা অব্যাহত রেখে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসমুক্ত রাখতে পুলিশ সদস্যরা তাদের পেশাদারিত্বের প্রমাণ দিয়ে যাবেন।’

পুলিশ সপ্তাহ-২০১৮ উপলক্ষে রোবার এক বাণীতে রাষ্ট্রপতি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেছেন, ‘জনগণ যখন পুলিশকে বন্ধু ভাবতে পারবে, তখন তারা নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে সহযোগিতার হাত সম্প্রসারিত করবে। তাই জনগণের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে তুলে নিরপেক্ষভাবে কাজ করে যেতে হবে। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সেবার মহান আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে বাংলাদেশ পুলিশ আরো গণমুখী ও জনবান্ধব প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশ ও জনগণের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করবে দেশবাসীর এটাই প্রত্যাশা।’

বাণীতে তিনি উল্লেখ করেন, বাংলাদেশ পুলিশ দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং জননিরাপত্তা বিধানে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান। ‘শৃঙ্খলা নিরাপত্তা প্রগতি’ মন্ত্রে দীক্ষিত বাংলাদেশ পুলিশের প্রত্যেক সদস্য দেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় অনবদ্য ভূমিকা রাখছে। সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গিবাদ দমনে বাংলাদেশ পুলিশের অনন্য ভূমিকা দেশে-বিদেশে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। মাদকের বিস্তাররোধ ও সাইবার ক্রাইমের মতো অপরাধ দমনেও পুলিশ যথেষ্ট সফলতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ পুলিশ শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও সুপরিচিত উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, জাতিসংঘের আওতায় পৃথিবীর যুদ্ধবিধ্বস্ত বিভিন্ন দেশে শান্তিরক্ষা ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা উঁচুমানের পেশাদারিত্বের স্বাক্ষর রাখছেন, যা বাংলাদেশের গৌরব ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে। বর্তমান সরকার বাংলাদেশ পুলিশের উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিক। তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ আধুনিক পুলিশ বাহিনী গঠনে সরকার ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।