উড়ন্ত প্লেনেই বিয়ের প্রস্তাব!

লরেন গিবস অস্ট্রেলিয়ার স্কাইওয়েস্ট এয়ারলাইন্সের একজন বিমান সেবিকা। আর জন এমারসন একই এয়ারলাইন্সের একজন পাইলট। এই পাইলট-বিমানবালার মধ্যে প্রেম ছিল বেশ কিছুদিনের। ‌এবার প্লেনেই সেই প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছেন ওই পাইলট এমারসন। আকাশে ওড়ার আগে অভিনব এ প্রস্তাব ও পরস্পরের আলিঙ্গনের আনন্দ ছুয়ে গেছে যাত্রীদেরও।

তবে যাত্রী ও এয়ারলাইন্সের অন্য কর্মীরা তাদের প্রেমের বিষয়টি জানতে পারেন প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার পরই। আর ঘটনাটির ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর তা দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায়।

ডেট্রয়েট থেকে ওকলাহোমা শহরগামী ফ্লাইটে যাত্রীদের জন্য বিশেষ চমকটি হঠাৎ করেই উপহার দেন এমারসন। ফ্লাইটটি ছাড়ার আগে মাইক্রোফোনে যাত্রার নিয়ম-কানুন জানিয়ে দিচ্ছিলেন পাইলট। এরপর হঠাৎ করে যাত্রীদেরকে বিমানবালা লরেনকে পরিচয় করিয়ে দেন। এক বছর ধরে সম্পর্কের কথা প্রথমে ফাঁস করে দেন তিনি।

‘এটি লরেন ও আমার জন্য একটি বিশেষ দিন। আজ আমাদের বার্ষিকী এবং সে আমাদের সবচেয়ে ভালো ফ্লাইট অ্যাটেন্টডেন্টদের একজন’- যাত্রীদের জানান এমারসন।‘আমি এই দিনটিতে আমাদের জীবনের বাকি অংশ জানাতে চাই। আমি তার সঙ্গে আমার জীবনের বাকি অংশ কাটাতে চাই’- পকেট থেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার জন্য আগেই ‍এনে রাখা একটি রিং বের করে দেওয়ার আগে যোগ করেন তিনি। তারপরই এমারসন হাঁটু গেড়ে বিয়ের প্রস্তাবটা দেন লরেনকে।

প্রেমিকের কাছ থেকে এমন সারপ্রাইজ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে প্রস্তাবটি লুফে নেন অভিভূত প্রেমিকা। প্রেমিক-প্রেমিকার এ আবেগঘন উচ্ছ্বাসকে করতালি দিয়ে স্বাগত ও অভিনন্দন জানান যাত্রীরা। ফেসবুকে শেয়ারের পর ভিডিওটি ১ লাখ ১৮ হাজারেরও বেশিবার দেখা হয়েছে এবং কমেন্টস্‌ করেছেন ৩ হাজার ৬০০ জন।