‘চট্টগ্রামের সদরঘাট থানা উড়িয়ে দিতে পরিকল্পনা করেছিল জঙ্গিরা’

চট্টগ্রামের সদরঘাট থানা উড়িয়ে দিতে পরিকল্পনা করেছিল নব্য জেএমবির আটক দুই সদস্য। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন গোয়েন্দা পুলিশের উপকমিশনার হাসান মাহমুদ শওকত।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নগরীর সদরঘাট থানার মাদারবাড়ীর ওই ভবনে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে এ দুজনকে আটক করা হয়। তাঁদের মধ্যে রাকিবুল হাসান নব্য জেএমবির ডেপুটি কমান্ডার। তাঁরা দুজন সদরঘাট থানায় হামলার ছক করেছিলেন।

পুলিশ জানায়, নব্য জেএমবির কথিত আমির ডন ভাইয়ের নির্দেশে চট্টগ্রাম শহরে পুলিশের স্থাপনা লক্ষ্য করে নাশকতা চালাতে দুই মাস আগে ব্যাচেলর পরিচয়ে ওই বাসা ভাড়া নেন নব্য জেএমবির সদস্যরা। ওই বাড়ি থেকে হামলা চালাতে হাতে আঁকা একটি ছক উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান হাসান মাহমুদ শওকত।

তিনি বলেন, এই পরিকল্পনার সঙ্গে মোট পাঁচজন নব্য জেএমবির সদস্য জড়িত বলে তাঁরা জানতে পেরেছেন। আজ দুজনকে আটক করা সম্ভব হলেও বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে। এর আগে আজ ভোররাতে নগরীর মাদারবাড়ী বালুর মাঠের পাশে মিনু ভবনের পাঁচতলা থেকে নব্য জেএমবির দুই সদস্য আসফাকুর রহমান ও রাকিবুল হাসান আটক করে পুলিশ।