নতুন বছরেই বিয়ের পীড়িতে নাবিলা!

অমিতাভ রেজার আলোচিত সিনেমা ‘আয়নাবাজি’ খ্যাত নায়িকা নাবিলা বছরের শেষে বিয়ের ঘোষণা দিলেন। ২০১৮ সালেই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন ‘আয়নাবাজি’ খ্যাত অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা। পাত্র জোবাইদুল হক পেশায় ব্যাংক কর্মকর্তা। বিয়ের দিনক্ষণ এখনও নির্দিষ্ট না হলেও জানা গেছে নতুন বছরের এপ্রিলেই শুভ কাজটা সেরে ফেলতে চান উপস্থাপনা দিয়ে মিডিয়াতে আসা এই মডেল-অভিনেত্রী।

সৌদি আরবের জেদ্দায় কৈশোরের দিনগুলো কাটিয়েছেন নাবিলা ও জোবাইদুল দু’জনই। সেখানে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, জেদ্দায় পড়াশোনার সুবাদে তাদের মধ্যে পরিচয় হয়। পরবর্তীতে তারা দু’জনই দেশে ফিরে আসেন।

নাবিলার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় হলেও তার জন্ম এবং বেড়ে ওঠা সৌদি আরবের জেদ্দায়। বাবার চাকরি সূত্রে তার কৈশোর কেটেছে দেশের বাইরে। একই ঘটনা ঘটেছে তার হবু বর নেত্রকোনার ছেলে জোবাইদুল হকের বেলাতেও। দেশে ফিরে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষে এখন একটি বেসরকারি ব্যাংকে কর্মরত আছেন।

এসএসসি পাসের পর ২০০০ সালে জেদ্দা থেকে নাবিলা স্থায়ীভাবে ঢাকায় চলে আসেন। ভর্তি হন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে।

জোবাইদুলের সঙ্গে পরিচয় প্রসঙ্গে নাবিলা বলেন, জেদ্দায় থাকাকালীন সময়ে তাদের পরিচয় হয়। একই স্কুলে পড়তেন দুজন। তখনই জোবাইদুলকে ভালোবেসে ফেলেন তিনি। জীবনের প্রথম প্রেমকে ১৮ বছর পর এবার পরিণয়ে রূপ দিতে যাচ্ছেন।

জানা গেছে, দুই পরিবারের মধ্যে ইতিমধ্যেই চুড়ান্ত আলোচনা হয়েছে। শুরু হয়েছে বিয়ের প্রস্তুতি। উপস্থাপনা দিয়ে মিডিয়া জগতে প্রবেশ নাবিলার। কিন্তু ২০১৬ সালের বহুল আলোচিত মুভি ‘আয়নাবাজি’র মাধ্যমে আলোচনায় আসেন নাবিলা। সিনেমাটিতে জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। সিনেমাটি ব্যাপক জনপ্রিয় এবং ব্যবসাসফল হয়।