জয়া ও তার ‘কিডস ক্যাম্পাস’

দেশের অভিনয় জগতের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি মুখ জয়া আহসান। অভিনয়ের নৈপুণ্য দিয়ে মাতিয়ে রেখেছেন দেশ থেকে বিদেশের সকল ভক্তদের। পাশাপাশি সামজিক দায়বদ্ধতা এবং শিশুদের প্রতি ভালো লাগা থেকে সম্প্রতি একটি স্কুলের সাথে নিজেকে যুক্ত করেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তবে ব্যস্ত নগরী ঢাকা নয়, সিলেটে গত শুক্রবার ‘কিডস ক্যাম্পাস’ নামের একটি প্রি স্কুল ও থিম পার্কের সাথে নিজেকে যুক্ত করেছেন জয়া। এখন থেকে এ স্কুলটির শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করবেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে জয়া আহসান বলেন, আমি অভিনয়ে আসার আগে ছাত্রাবস্থায় একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেছিলাম। তাছাড়া আমার মা রেহানা মাসউদ-ও ঢাকায় একটি প্রথম সারির স্কুলের শিক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন। সেই তাড়না থেকেই শিশুদের জন্য সিলেটের কাজীটুলায় ‘কিডস ক্যাম্পাস’-এর সাথে নিজেকে যুক্ত করেছি। এখানে ডে কেয়ার থেকে স্ট্যান্ডার্ড ওয়ান পর্যন্ত প্রাথমিকভাবে ভর্তি করা হচ্ছে। ইন্টারন্যাশনাল প্রি স্কুল কারিকুলাম অনুযায়ী এ স্কুলটি পরিচালিত হবে। তবে শুধু স্কুলই নয়, স্কুলের পাশাপাশি শিশুদের মানসিক বিকাশ সাধনের জন্য থাকছে একটি থিম পার্ক।

তিনি আরও বলেন, আমি মূলত পড়াশোনার পাশাপাশি শিশুদের জোৎস্ন্যা দেখা, বৃষ্টিতে ভেজা, খালি পায়ে মাটিরবোধ আস্বাদন করা, সর্বোপরি শিশুরা কিভাবে বিশ্ব দরবারে নিজের ভাষাকে, নিজের দেশকে তুলে ধরতে পারবে-সে বিষয়গুলোতেই জোর দেবো।

জয়া জানান, গত শুক্রবার ‘কিডস ক্যাম্পাস’এর উদ্বোধনী আয়োজনে স্কুলের চেয়ারম্যান মো আব্দুল ওয়াদুদ তপাদার, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মির্জা তারেক বেগ, প্রিন্সিপাল আতিয়া রসূলসহ স্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সব পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

শিশুদের জন্য ভবিষ্যতে আরো অনেক কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে জয়া জানান, আসছে শুক্রবার শিশুদের নিয়ে তার নতুন চলচ্চিত্র ‘পুত্র’ মুক্তি পাবে। সরকারী অনুদান প্রাপ্ত এ ছবিটি দেখবার জন্য জয়া বিশেষভাবে অনুরোধ করেন।

জয়া বলেন, কিছু চলচ্চিত্র আমাদের বিনোদিত করে। কিছু চলচ্চিত্র বিকশিত করে। ‘পুত্র’ আমাদের শুধু বিনোদনই দেবে না, আমাদের বোধের জায়গাগুলোও নতুন করে জাগিয়ে তুলবে বলে আমার বিশ্বাস। আশা করছি সব দর্শক হলে এসে ছবিটি দেখবেন।