রাজধানীতে মাদক অভিযানে ৭৬৩ বোতল মদসহ আটক ৩

ইংরেজি নতুন বছর উপলক্ষে থার্টিফাস্ট নাইটে রাজধানীতে মাদক ঠেকাতে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে পুলিশ ও এলিট ফোর্স র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। বৃহস্পতিবার রাজধানীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৭৬৩ বোতল বিদেশি মদ জব্দ করে র‍্যাব। যার মধ্যে ৫৪৩ বোতল বিয়ার রয়েছে। এ সময় তিনজনকে আটক করা হয়।

সম্প্রতি বিজিবি সদর দফতর পিলখানায় ‘সীমান্ত সমস্যা ও সমাধান সম্পর্কে করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায়, মাদক চোরাচালানে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না মন্তব্য করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সভায় তিনি বলেন, পুলিশ, র‍্যাব কিংবা জনপ্রতিনিধি যেই হোক, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নন। যার বিরুদ্ধেই মাদক চোরাচালানের অভিযোগ পাওয়া যাবে আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। এরপরই পৃথক এ দুটি অভিযান চালালো র‌্যাব।

র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাসেম বলেন, ভোর রাতে রাজধানীর গুলশান-১ এর ১১১নং রোড থেকে বিদেশি মদ ও বিয়ারসহ দুই জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, রফিক ও জহির। এসময় তাদের কাছ থেকে ২২০ বোতল বিদেশি মদ ও ১৬০ বোতল বিয়ার জব্দ করা হয়। আটককৃতরা মাদক ব্যবসায় জড়িত। তারা মাদকের চালান নিয়ে গাজীপুরে যাচ্ছিল। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, মাদকের ব্যাপারে সম্প্রতি গণমাধ্যমে সংবাদ পরিবেশনের পর ও থার্টিফাস্ট নাইট উপলক্ষে র‍্যাব-১ বিশেষ অভিযান শুরু করেছে। অন্যদিকে পুরান ঢাকার আরমানিটোলা উষা ক্রীড়া চক্রের সামনে প্রাইভেটকার থেকে ৩৮৩ ক্যান বিয়ারসহ আবু তাহের নামে এক প্রাইভেটকার চালককে আটক করেছে র‍্যাব-১০। র‍্যাব-১০ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মঞ্জুর মোর্দেশের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার দুপুরে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

তিনি জানান, প্রাইভেটকারে ১৬ কেইসের ভেতরে এসব বিয়ার ছিল। বিয়ারগুলো বেলজিয়ামে তৈরি। বাংলাদেশি টাকায় এর মূল্য প্রায় ৩ লাখ ৬ হাজার টাকা। আটক প্রাইভেটকার চালকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।