‘বাবা ছেলের নাম ঘোষণা করা হল বিএনপির গণতন্ত্র’

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে বিএনপি মেয়র প্রার্থী ঘোষণা প্রক্রিয়ার সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাবা ছেলের নাম ঘোষণা করে এটা কেমন গণতন্ত্র। বৃহস্পতিবার সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে দেখলাম বাবা (আব্দুল আওয়াল মিন্টু) তার ছেলেকে (তাবিথ আওয়াল) বিএনপির উত্তরের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করেছেন। এটা আওয়ামী লীগ কখনও করে না। বাবা বিএনপির নেতা, তিনি তার ছেলেকে মনোনয়ন দিয়েছেন। যে ছেলের নাম প্যারাডাইজ পেপারে এসেছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে হলে আমাদের মনোনয়ন বোর্ড থেকে নাম আসবে। আমি পার্টির সাধারণ সম্পাদক, হঠাৎ করে বলে দিলাম যে আওয়ামী লীগের সে প্রার্থী, এটা আমাদের দলে হবে না। এই যে দেখুন, বিএনপিতে কোনো গণতন্ত্র নেই। বাবা হঠাৎ করে নিজের ছেলেকে প্রার্থী বলে দিলেন, এতেই বোঝা যায় কোন দলে গণতন্ত্র আছে কোন দলে নেই। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ একটা বড় দল। বড় দলের কিছু কিছু সমস্যা থাকে। কিন্তু আওয়ামী লীগের সব চেয়ে বড় বিউটি হচ্ছে দেশরত্ন শেখ হাসিনা দলের সভাপতি, তার নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধ।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের যদি কোনো মেজর সমস্যা হয়, আর আমরা যদি তা সমাধানে ব্যর্থ হই তাহলে আমাদের নেত্রীর হস্তক্ষেপে তার সমাধান হয়। আমরা পার্টিতে অনাকাঙ্খিত কিছু ঘটতে দিচ্ছি না। আমাদের দলের একজন অন্যায় করবে শাস্তি পাবে না, এটা হয় না।

তিনি বলেন, মাঝে মাঝে কিছু সমস্যা হয়। নির্বাচনকে সামনে রেখে সুস্থ প্রতিযোগিতা থাকবে। যে কেউ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করতেই পারেন। কোনো জায়গায় ১০-১৫ জন প্রার্থী আছে, থাকতে পারে। কিন্তু আমাদের পার্টির সভাপতি শেখ হাসিনা মনোনয়ন বোর্ডের মাধ্যমে দলীয় মনোনয়ন দেবেন।

খালেদা জিয়ার মামলায় সরকারের কোনো হাত নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নেতারা বলছেন খালেদা জিয়া নির্দোষ প্রমানিত হবে। বিচারে তিনি যদি নির্দোষ প্রমানিত হন অবশ্যই খালাস পাবেন। এখানে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ নেই।

মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।