দ্বিতীয় দিনেও মেতে উঠেছে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব ২০১৭’

আজ বুধবার দ্বিতীয় দিনেও মেতে উঠেছে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব ২০১৭’ এর আসর। এই ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উৎসব ২০১৭’ দেখার জন্য প্রথম দিনের মতই ঢল নেমেছে রাজধানীর আবাহনী মাঠে।

বিকেল থেকেই দর্শকের আগমন ঘটতে থাকে। সন্ধ্যার পরপরই পুরো মাঠ জুড়ে দর্শকের ভিড়। অনেকে এসেছেন একা আবার অনেকে এসেছেন পরিবারের সাথে। সুরের এই খেলা যেন সবার মনে জায়গা করে নিয়েছে।

দ্বিতীয় দিনের এই আসর মাতিয়ে তুলতে যারা আছেনঃ

নৃত্য পরিবেশনায় রয়েছেন অদিতি মঙ্গল ডান্স কোম্পানি, তবলায় রয়েছেন বেঙ্গল পরম্পরা সঙ্গিতালয়ের ছাত্রছাত্রীবৃন্দ, সান্তুর পরিবেশনায় পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা, খায়াল পরিবেশনায় রয়েছেন পণ্ডিত উল্লাস কাল্কার, সেতারায় রয়েছেন উস্তাদ শাহিদ পারভেজ খান, ধ্রুপাদ পরিবেশনায় রয়েছেন বেঙ্গল পরম্পরা সঙ্গিতালয়ের অভিজিৎ কুণ্ডু এবং বাঁশিতে রয়েছেন রনু মজুমদার এবং শারদ পরিবেশনায় রয়েছেন পণ্ডিত দেবজয়তি বোশ।

এছাড়া, এই সংগীত উৎসবের প্রথম দিনের আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, আবাহনী লিমিটেডের সভাপতি সালমান এফ রহমান, ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা ও স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী।

এছাড়াও প্রথম দিনে ড. এল সুব্রহ্মণ্যন এবং আসতানা সিম্ফনি ফিলহারমোনিকের অর্কেস্ট্রা পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় উদ্বোধনী রাতের আসর। এরপর সরোদ বাজিয়ে অনুষ্ঠানের আসর জমিয়ে তুলেন রাজরূপা চৌধুরী, ফিরোজ খান ও পূর্বায়ন চ্যাটার্জি। এছড়াও খেয়াল পরিবেশন করেন বিদুষী পদ্মা তালওয়ালকর, সুপ্রিয়া দাস ও বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থীরা এবং বাঁশিতে সুর তুলেন রাকেশ চৌধুরী।

প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হয়ে পরদিন ভোর ৫টা পর্যন্ত চলবে এই সঙ্গীত সুরের খেলা। ৩০ ডিসেম্বর শেষ হবে পাঁচরাতের এই সঙ্গীত উৎসব।