জম্মু-কাশ্মিরে কথিত বন্দুকযুদ্ধ, নিহত ১

জম্মু-কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক গেরিলা নিহত হয়েছেন। আজ (মঙ্গলবার) পুলওয়ামা জেলার সাম্বোরা এলাকায় নূর মুহাম্মদ তান্তারি (৪৭) নামে ওই গেরিলা নিহত হন। গতকাল (সোমবার) সন্ধ্যায় সংশ্লিষ্ট এলাকা ঘিরে ফেলে নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান চালালে উভয়পক্ষের মধ্যে কথিত বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়। নিহত ওই গেরিলা জৈশ-ই-মুহাম্মদের বিভাগীয় কমান্ডার বলে দাবি করা হচ্ছে। তিনি কাশ্মিরের ত্রালের বাসিন্দা ছিলেন।

রাজ্য পুলিশের এক কর্মকর্তা দাবি করেন, সংশ্লিষ্ট এলাকায় শ্রীনগর-জম্মু জাতীয় সড়কে ২/৩ সন্ত্রাসী সেনা কনভয়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিল। ওই এলাকা ঘিরে ফেলে অভিযান চালানো হলে এক সন্ত্রাসী নিহত হয় এবং তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে, ওই ঘটনার প্রতিবাদে আজ দক্ষিণ কাশ্মিরের ত্রাল ও পাম্পোর এলাকায় সর্বাত্মক বনধ পালিত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকার দোকানপাট ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানসহ সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। এছাড়া, ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইন্টারনেট পরিসেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আজ মধ্য কাশ্মিরের বাডগাম জেলার সুগান ও কোকেরবাগ এলাকাতেও নিরাপত্তা বাহিনী গেরিলাদের সন্ধানে ঘেরাও ও বাড়ি বাড়ি তল্লাশি অভিযান চালায়।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়য়ের এক তথ্য সূত্রে প্রকাশ, চলতি বছরের ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত জম্মু-কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর ‘অপারেশন অল আউট’ অভিযানে ২০৩ গেরিলা নিহত হয়েছেন। গত তিন বছরে গেরিলাদের নিহত হওয়ার পরিসংখ্যানের মধ্যে যা সবচেয়ে বেশি। ২০১৬ সালে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ১৪৮ এবং ২০১৫ সালে ১০৮ গেরিলা নিহত হয়েছিলেন।