‘শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যই প্রমাণ দিয়েছে সরকার দুর্নীতিবাজ’

শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যে বর্তমান সরকার আত্মস্বীকৃত চোর ও দুর্নীতিবাজ প্রমাণিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে, রবিবার ঢাকায় শিক্ষা ভবনে পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদফতরের (ডিআইএ) সম্মেলন কক্ষে অধিদফতরের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘আপনারা ঘুষ খাবেন, তবে সহনশীল হয়ে খাবেন। কারণ, আমার সাহস নেই বলার যে, আপনারা ঘুষ খাবেন না। এটা অর্থহীন বলা হবে।’ নাহিদ আরও বলেন, ‘শুধু যে অফিসাররা চোর তা নয়, মন্ত্রীরাও চোর। আমি নিজেও চোর। এ জগতে এমনই হয়ে আসতেছে। সব জায়গায়ই এমনটা হচ্ছে। তাই সবাই মিলে এটি পরিবর্তন করতে হবে।’

এই কথার সূত্র ধরে সংবাদ সম্মেলনে রিজভী আরও বলেন, ”দেশের শিক্ষামন্ত্রীর যদি বক্তব্য এই হয়, তাহলে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা সততা, নৈতিকতার পাঠ কোথায় নেবে? শিক্ষামন্ত্রী এক ভয়ঙ্কর বার্তা পাঠালেন শিক্ষাঙ্গনে, তার বক্তব্যে এটাই ফুটে উঠছে যে, ছাত্র-ছাত্রীরা তোমরা নীতি, নৈতিকতা, আদর্শ এবং ন্যায়বোধের বিবেকশাসিত উন্নত মানুষ হওয়ার বদলে সহনীয় মাত্রায় দুর্নীতির পাঠ নিতে শিখো, তাহলেই তোমাদের সাফল্য আসবে।”

এদিকে, কৃষকদের সুবিধার্থে সরকারই চেয়েছিল চালের দাম বাড়ুক। তবে তা যে হারে বেড়েছে, এটা অসহনীয়।- অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, বিনা ভোটের সরকারের অর্থমন্ত্রী অনেক সময় সত্য কথা প্রকাশ করে দেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।