তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিশুকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মোঃ সায়েম (৮) নামে এক শিশুকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিবেশীরা। আহত অবস্থায় সায়েমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে পরিবারের লোকজন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের নামা বলদিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ জিয়াউর রহমান জানায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে নামা বলদিয়াপাড়া গ্রামে ফুটবল মাঠে বিজয় দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠান চলছিল। সন্ধ্যায় ঘনিয়ে আসায় ছোট ছেলে মেয়ে বাড়ী ফিরে যাচ্ছিল। এ সময় ঔ এলাকার ফরমান শেখের স্ত্রী মোছাঃ নছিরন বেগম গরু ফিরে ফিরছিলেন। শিশুদের দেখে গরু তেড়ে আসে তাদের দিকে। এতে ভয় একই গ্রামের মোঃ শহর শেখের মেয়ে মোছাঃ মিথিলা (৫)সহ কয়েকজন শিশু ভয়ে কেদে ফেলে এবং বাড়ী চলে যায়। শিশুদের কাঁদতে দেখে মোঃ শহর শেখ ছুটে আসে। এ সময় সে পথে অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন একই এলাকার মৃত সিরাজুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ সাবিরন বেগম এবং ছেলে সাইফুল ইসলাম (১০) এবং মোঃ সায়েম (০৮)। তাদের সামনে পেয়ে শিশুদের ভয় দেখানো হয়েছে বলে তাদেরকে অভিযুক্ত করে মোঃ মোঃ সায়েমকে মারধর শুরু করে মোঃ শহর শেখ এবং তার ছেলে মোঃ সুমন । তাদের বেধড়ক পিটুনিতে আহত সায়েমকে উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারের মোঃ সায়েমের মা মোছাঃ সাবিরন বেগম জানান, কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই মারপিট শুরু করেন মোঃ শহর শেখ (৪৮)। পরে তার সাথে যোগ দেয় তার ছেলে সুমন (১৮) স্ত্রী মরিয়ম বেগম (৪০)। কি কারণে মারধর করছে জানতে চাইলে অশ্লীল ভাষায় আমাকে গালিগালাজ করে। পরে এলাকাবাসী ছুটে আসলে তারা পালিয়ে যায়। সায়েমকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রাতেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছি। আমরা এর বিচার চাই এবং আপনাদের সকলের সহযোগীতা চাই। তাকে নিয়ে হাসপাতালে থাকার কারণে বিষয়টি চেয়ারম্যান কিংবা থানাকে জানাতে পারিনি। এ বিষয়ে মামলা করবেন বলে তিনি জানান।

অভিযোগের বিষয়ে মুঠো ফোনে মোঃ শহর শেখের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার মেয়েসহ এলাকার শিশুরা বাড়ী ফেরার পথে মোছাঃ সাবিরন বেগমের ছেলে সহ তাদের আত্মীয়স্বজন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। বিষয়টি জানতে পেরে আমরা প্রতিবাদ জানাই এবং এর কারণ জানতে চাই। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মোছাঃ সাবিরন বেগম আমাদের উপর চড়াও হয় এবং গালমন্দ করে। এতটুকু শিশুকে মারধর করার কোন প্রশ্ন আসে না। তাদের অভিযোগ মিথ্যে। তারা মিথ্যে মামলা দিয়ে আমাদের শায়েস্তা করার জন্য ছেলেকে দিয়ে এই নাটক সাজিয়েছে।

বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার মোঃ মাহামুদুল হাসান পলাশ জানান, শিশু সায়েমকে তাৎক্ষণিক ভাবে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। বর্তমানে সে আশংকা মুক্ত রয়েছে। বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ মশিউর রহমান জানান, এ ধরণের কোন অভিযোগের বিষয়ে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অবহিত করেনি। এই বিষয়ে লিখিত ভাবে অভিযোগ পেলে তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

 

মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি