আরও একটি সম্মান প্রিয়াঙ্কার ঝুলিতে!

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বর্তমানে বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী। একের পর এক অ্যাওয়ার্ড পুরছেন নিজের ঝুলিতে।১৪ বছর আগে অর্থাৎ ২০০৩ সালে ‘দ্য হিরো: লাভ স্টোরি অব অ্যা স্পাই’ সিনেমা দিয়ে তার অভিষেক ঘটে। কিছুদিন আগেই মাদার টেরিজা স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন। আর এবার সাম্মান সূচক ডক্টরেট পেতে চলেছেন দেশি গার্ল। এই সুযোগেই প্রায় পাঁচ বছর পর ফিরতে চলেছেন নিজের হোমটাউন বরেলিতে।

একের পর এক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। অভিনয়ের জন্য জাতীয় পুরস্কার ও ভারত সরকারের ‘পদ্মশ্রী’সহ আরও নান পুরস্কার পেয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। আর এখন তো বলিউডের পাশাপাশি হলিউডেও দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। বরেলি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই এই উপাধি দেওয়া হচ্ছে প্রিয়াঙ্কাকে। ২৪ তারিখই তার হাতে এই সম্মানের প্রশংসাপত্র তুলে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন চ্যান্সেলর ডা. কেশব কুমার এ আগরওয়াল-সহ একাধিক মন্ত্রী। সেখানে নিজের হাতে এই সম্মান গ্রহণ করবেন প্রিয়াঙ্কা।

কিছুদিন আগেই মাদার টেরিজা মেমোরিয়াল অ্যাওয়ার্ড ফর সোশ্যাল জাস্টিস দেওয়া হয় তাকে। তবে নিজে হাতে সে পুরস্কার নিতে আসতে পারেননি প্রিয়াঙ্কা। মেয়ের হয়ে সম্মান গ্রহণ করেন মা মধু চোপড়া। জানালেন, ছোটবেলা থেকেই অন্যের দুঃখ ভীষণভাবে প্রভাবিত করে প্রিয়াঙ্কাকে। অন্যের দুঃখ-দুর্দশা বোঝার মতো মন যার কাছে রয়েছে, এমন মেয়ে পেয়ে গর্বিত তিনি। এবার অবশ্য আগে থেকেই ভারতে চলেছে এসেছেন পি সি।

দেশে এসেও ভীষণ ব্যস্ত নায়িকা। ইতিমধ্যেই জি সিনে অ্যাওয়ার্ডস-এ পারফর্ম করে ফেলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছেন সে ছবি। বি-টাউনে জোর গুঞ্জন, পাঁচ মিনিটের এই পারফরম্যান্সের জন্য নাকি ৫ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন ‘কোয়ান্টিকো’ গার্ল। ইউনিসেফের গুডউইল অ্যাম্বাসাডর প্রিয়াঙ্কা। তাই যেখানেই যান ইনস্টিটিউশনের কিছু কাজে অংশ নিয়ে থাকেন। দেশে এসেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ছোট ছোট বাচ্চাদের সঙ্গেও দেখা করেছিলেন নায়িকা।

সব ঠিক থাকলে ২৪ তারিখ আবার ফিরে যাবেন নিজের হোমটাউনে। সেখানে পাবেন আরও একটি সম্মান। সাদরে তা গ্রহণ করবেন। তারপর কাজ সেরে ও ছুটি কাটিয়ে ফিরবেন হলিউডে। রেখে যাবেন আরও কিছু স্মৃতি।