‘বিপদের বন্ধুকে হারিয়ে ফেললাম’

মাশরাফি ও ইনজুরি শব্দ দুটি প্রায় একই। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই এখন পর্যন্ত কতবার ছুরিকাঁচির নিচে গিয়েছেন তার নিজেরও মনে থাকার নয়। অন্য অনেক ক্রিকেটারের চেয়েই তার চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হয় বেশ নিয়মিত। তাই তার কাছের মানুষের তালিকা করতে গেলে তাই বিসিবির চিকিৎসকরা থাকেন ওপরের দিকেই। তেমনই একজন ডাক্তার মনিরুল আমিন। হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি গতকাল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

৪৬ বছর বয়সী এই চিকিৎসকের অকালে চলে যাওয়াটা মানতে পারছেন না মাশরাফি। বুকের কষ্ট নিয়েই মাশরাফি নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, ‘কাল সন্ধ্যা থেকে ফোন করছি ডাক্তারের অ্যাপয়েনম্যান্ট এর জন্য। ফোন ধরছেই না। ভাবলাম জার্সিটা খেলার পরপরই পায়নি বলে রেগে আছেন। পরে শুনি হাসপাতালে ভর্তি। হার্ট অ্যাটাক। ডাক্তার বললো, দোয়া করতে। কিন্তু যা হওয়ার হয়ে গেলো। সবচেয়ে বিপদের বন্ধুকে হারিয়ে ফেললাম। জার্সিটাও আর দেওয়া হলো না। কোনভাবেই বিশ্বাস হচ্ছে না ফাইনালের পরে দেখা সুস্থ্ মানুষটা আর নাই। আমিন ভাই, আল্লাহ আপনাকে বেহেস্ত নসিব করুন।’

বরিশাল মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি নেওয়া মনিরুল আমিন আবাহনী ক্লাবের চিকিৎসক হিসেবে কাজ করেছেন দীর্ঘদিন। ক্লাবটির ক্রিকেট, ফুটবল ও হকি তিনটি দলেরই দায়িত্বে ছিলেন তিনি। বিসিবিতে চিকিৎসক হিসেবে যোগ দেন ২০০৯ সালে। আজ বাদ জুমা ধানমণ্ডির বায়তুল আমান জামে মসজিদে তার জানাজা শেষে দাফন করা হবে মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে।