‘ট্রাম্পের ঘোষণা চরমপন্থি গোষ্ঠীগুলোকে আরো চাঙ্গা করে তুলবে’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেবার পর সৌদি আরব সতর্কবাণী উচ্চারণ করেছে যে এ ঘোষণা চরমপন্থি গোষ্ঠীগুলোকে আরো চাঙ্গা করে তুলবে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘোষণার পর ফিলিস্তিনে উত্তেজনা ক্রমাগত বাড়ছে। শনিবার ভোরে ইসরায়েল গাজায় আরো দুটি বিমান হামলা চালিয়েছে যাতে দুজন ফিলিস্তিনি নিহত হয়।

একজন সংবাদদাতা বলছেন, উপসাগরীয় এলাকায় ব্যাপক উদ্বেগ দেখা দিয়েছে যে মি ট্রাম্প জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় তা ইরান এবং আল-কায়েদা ও ইসলামিক স্টেটের জিহাদিদের চাঙ্গা করে তুলবে।

বাহরাইনে মানামা ডায়ালগ ইভেন্ট নামে এক বার্ষিক নিরাপত্তা সম্মেলনে সৌদি প্রিন্স তুরকি আল ফয়সালের কথায় তারই প্রতিধ্বনি শোনা গেল। তিনি বলছেন, এ ঘোষণা জঙ্গি গ্রুপগুলোর জন্য অক্সিজেনের মতো কাজ করবে এবং তা মোকাবিলা করা কঠিন হবে। প্রিন্স তুরকি আল ফয়সাল গত ২০ বছর ধরে সৌদি আরবের গোয়েন্দা বাহিনীর প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। এ সম্মেলনে জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হেইলির একটি প্রবন্ধ পড়ার কথা ছিল কিন্তু তিনি আসেন নি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ঘোষণা নিয়ে ফিলিস্তিনি অঞ্চলে উত্তেজনা ক্রমাগত বাড়ছে। ইসরাইলের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ভেদ করে সিদেরত শহরে একটি ফিলিস্তিনি রকেট এসে পড়ে । এতে কেউ আহত হয় নি তবে কিছু গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সংবাদদাতা বলছেন, শুক্রবার গাজা থেকে ইসরায়েল লক্ষ্য করে মোট তিনটি রকেট ছোঁড়া হয়েছে। এবং এর পর শনিবার ভোরে ইসরাইল মধ্য ও দক্ষিণ গাজায় বিমান হামলা চালায়।

ইসরাইল বলছে, তারা গাজা এলাকায় হামাসের অস্ত্র কারখানা এবং অস্ত্রের গুদামের ওপর আক্রমণ চালিয়েছে। হামাস বলছে, তারা ধ্বংসস্তূপের ভেতর থেকে দু,জন ফিলিস্তিনির মৃতদেহ বের করেছে। বিমান হামলায় অন্তত ১৬০ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়। এ ছাড়া শুক্রবার ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভের সময় ইসরাইলি সৈন্যদের গুলিতে কমপক্ষে দু’ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত সপ্তাহে জেরুসালেমেক ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে এই স্বীকৃতি দেন।

ইসরায়েল সবসময়ই বলে আসছে জেরুসালেম তাদের রাজধানী। আর ফিলিস্তিনিরাও পূর্ব জেরুসালেমকে তাদের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে মনে করে। ১৯৬৭ সালের যুদ্ধে ইসরায়েল পূর্ব জেরুসালেম দখল করে নেয়।