মার্গারেটের কারণে পদত্যাগ করেছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী!

ব্রিটেনের আলোচিত মডেল ও কলগার্ল ক্রিস্টিন মার্গারেট কীলার মারা গেছেন। গত মঙ্গলবার ৭৫ বছর বয়সে লিভার সমস্যায় ভুগে মারা যান ক্রিস্টিন কীলার। তাকে কেউ পছন্দ করুক বা নাই করুক ব্রিটিশ মন্ত্রীর সঙ্গে স্ক্যান্ডালের জন্য তিনি সবসময় আলোচনায় থাকবেন।

১৯৬০-এর দশকে বেশ আলোচিত ছিলেন ক্রিস্টিন। তার জন্ম ১৯৪২ সালে। ১৯ বছর বয়সেই লন্ডনের এক জনপ্রিয় ক্যাবারে ডান্সার হয়ে উঠেছিলেন। ক্রিস্টিনের নাচ দেখার জন্য গণ্যমান্য ব্যক্তিরাও ভিড় জমাতেন। ১৯৬১ সালের জুলাই মাসে ব্রিটিশ মন্ত্রী জন প্রফিউমোর সঙ্গে ক্রিস্টিনের পরিচয় হয়। এর দুই বছরের মধ্যে তাদের মধ্যকার সম্পর্কের বিষয়টি জনসম্মুখে প্রকাশ পায়। তুমুল আলোচনা ও সমালোচনা শুরু হওয়ায় এসে পড়ায় মন্ত্রী জন প্রফিউমোর তার স্ত্রীকেও জানাতে বাধ্য হন। তারপর মন্ত্রণালয়ে বিষয়টি স্বীকার করে নেন।

এরপর তাকে পদত্যাগও করতে হয়। তার পদত্যাগের এক মাস পরে প্রধানমন্ত্রী হারোল্ড ম্যাকমিলানকেও নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়। প্রেমের সম্পর্কে জন প্রফিউমোরকে সমালোচনার মুখে পড়তে হলেও, ক্রিস্টিন রাতারাতি চর্চার হট টপিক হয়ে ওঠেন। এমনকি তার একটি নগ্ন ছবিও সে সময় ভাইরাল হয়ে যায়, যার জন্য ক্রিস্টিনকে ছয় মাস জেলেও কাটাতে হয়েছিল।