সমুদ্রের তলদেশে জুলিয়াস সিজারের রহস্যময় শহর!

সম্রাট জুলিয়াস সিজার ছিলেন প্রাচীন রোমান সাম্রাজ্যের গোড়াপত্তনের মূলে। কিন্তু সিজারের ক্ষমতা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে  যেমন লোপ পায়, তেমনই একদিন কালের গর্ভে তলিয়ে যায় সেই শক্তিশালী সাম্রাজ্যও। ইতালির প্রাণকেন্দ্রে জুলিয়াস সিজার আর তাঁর রোম এখনও স্মৃতিজাগরুক। কিন্তু রোম ছাড়াও আরও অনেক শহর ছিল, যেখানে নিজেদের কীর্তি ছড়িয়ে রেখেছিলেন রোমান সভ্যতার রূপকাররা।

‘বেয়াই’ নামের একটি স্থান ছিল রোমান সাম্রাজ্যের ধনীদের খুব পছন্দের জায়গা। ইতালির ‘গাল্ফ অফ নেপ্‌লেস’-এর এই জায়গায় প্রায়শই বেড়াতে যেতেন অভিজাতরা। যাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন জুলিয়াস সিজার, নেরো, পম্পেই, হাদ্রিয়ান ও তাঁদের পারিষদবর্গ। শুধু যে অবসর সময় কাটানোর জন্য যাওয়া, তাই-ই নয়। এই সব নেতাদের নিজস্ব ‘ভিলা’ ছিল বেয়াই-তে। এবং সেখানে কী কী হতো, তা না হয় উহ্যই থাক। একদিকে বিলাসিতা আর অন্যদিকে নৃশংসতার আকর ছিল বেয়াইয়ের এই সুন্দর ও সুসজ্জিত প্রাসাদগুলি।

কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে, সমুদ্রের তটরেখা সরে যাওয়ার ফলে, বেয়াইয়ের অনেক প্রাসাদই এখন রয়েছে জলের তলায়। বেয়াইয়ের অনতিদূরেই রয়েছে ভিসুভিয়াস আগ্নেয়গিরি। সেখানে অগ্নুৎপাতের ফলেই পাড়ের দিকে প্রায় ৪০০ মিটার পর্যন্ত জল সরে গিয়েছে। সম্প্রতি, নেপল্‌সের এই উপসাগরীয় অঞ্চলটি খুলে দেওয়া হয়েছে ডুবুরিদের জন্য। আন্তোনিও বুসিয়েলো নামে নেপল্‌সের এক চিত্রগ্রাহক, জলের তলায় হারিয়ে যাওয়া সেই শহরের নানা ছবি তুলে ধরেছেন বিশ্বের সামনে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here