দৌলতপুরে গৃহবধুকে উত্যাক্ত করা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৬

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের পল্লীতে এক গৃহবধুকে উত্যাক্ত করার প্রতিবাদ করাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে মুক্তিযোদ্ধা ও মহিলা সহ ৬ জন আহত হয়েছে।

থানা পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের নজিবপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কিবরিয়ার ছেলে চাকুরীর সুবাদে বাইরে থাকায় তার পুত্রবধু এক সন্তানের জননী (২৮) কে প্রতিবেশী মৃত সিরাজুল হকের ছেলে লম্পট লতিফুর রহমান নান্টু (৩২) দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্নভাবে উত্যাক্ত করা সহ কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। সোমবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কিবরিয়া এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে নান্টু ও তার ভাই হাবিব মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কিবরিয়ার উপর হামলা করে লাঠি দিয়ে পিটাতে থাকে এ সময় গোলাম কিবরিয়ার ছেলে সামিউল ইসলাম সেলিম ও তার মা ছুটে গেলে তাদের সাথে হামলাকারীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে মুক্তিযোদ্ধা গোলাম কিবরিয়া (৭২) তার স্ত্রী মাসুদা বেগম (৫৫) ও ছেলে সেলিম গুরুতর আহত হয়। এসময় হামলাকারী নান্টু (৩২) তার ভাই হাবিব (৪০) ও হাবিবের স্ত্রী সেলিনা (৩৫) আহত হয়। আহতরা দৌলতপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জহুরুল হক, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি