এক মাসের শিশুকন্যাকে হত্যা করলো মা!

পর পর দুইটি কন্যা সন্তান হওয়ায় নিজের এক মাসের শিশুকন্যাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে জহুরা ওরফে মেঘনা বেগম (২২) নামে এক পাষণ্ড মা। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার টেমা স্কুল পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এই ঘটনায় শিশুটি দাদা মফিজ উদ্দিন বাদী হয়ে বিকেলে মোহনপুর থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পরে ঘাতক ওই মাকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

এছাড়া শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে থানায় রেখে মেঘনা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানা যায়।

রাজশাহীর মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আবুল কাশেম আজাদ বলেন, উপজেলার টেমা স্কুল পাড়া গ্রামের ইসলাম আলীর মেয়ে জহুরা ওরফে মেঘনা বেগমের সঙ্গে তানোর উপজেলার চান্দুড়িয়া গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে হাবিবুর রহমানের বিয়ে হয় তিন বছর আগে। তাদের সংসার করা অবস্থায় পর পর দু’টি কন্যা সন্তান জন্ম নেয়।

মেঘনা বেগম দুই কন্যা সন্তানকে নিয়ে কয়েকদিন আগে বাবা ইসলাম আলীর বাড়িতে বেড়াতে আসেন। পর পর দু’টি কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ায় মানসিক অশান্তিতে ভুগছিলেন মেঘনা বেগম।

ওসি বলেন, সোমবার দুপুরে সবার অজান্তে মেঘনা বাবার বাড়িতে তার এক মাসের কন্যা সন্তান খাদিজা খাতুনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি জানতে পেরে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় মা মেঘনা বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বর্তমানে তাকে থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে তাকে আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।