পাকিস্তানি তারকাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বিতর্কে সোনম কাপুর!

পাকিস্তানি অভিনেতা ফাওয়াদ খান বলিউডে মাত্র তিনটি সিনেমায় অভিনয় করতে পেরেছিলেন। ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কে ফাটল ধরায় বলিউডে নিষিদ্ধ হয়ে যান পাকিস্তানি তারকারা। কিন্তু ভক্ত ও সহকর্মীদের হৃদয়ে আজও অবস্থান করছেন তিনি। গত ২৯ নভেম্বর ছিল এই অভিনেতার জন্মদিন। আর তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আক্রমণের শিকার হলেন অভিনেত্রী সোনম কাপুর।

পাকিস্তানি তারকাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে বিতর্কে সোনম কাপুর!1

একসঙ্গে অভিনয় করে সুপারহিট একটি ছবি উপহার দিয়েছিলেন তারা। সিনেমার নাম ‘খুবসুরত’। সিনেমাটি করে দারুন প্রশংসা পেয়েছিলেন ফাওয়াদ ও সোনম। তখন থেকেই দুজনের বন্ধুত্বের শুরু। তাই জন্মদিনে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছিলেন সোনম। সেই শুভেচ্ছা বার্তাই কাল হলো সোনমের জন্য। ভক্ত-অনুরাগীদের বিরূপ মন্তব্য শুনতে হল নায়িকাকে। যদিও আক্রমণের সামনে পড়েও এ বিষয়ে পাল্টা কোনো মন্তব্য করেননি অনিল কাপুর কন্যা সোনম।

উরি হামলা এবং সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর একাধিক সংগঠনের ক্ষোভের মুখে পড়ে ভারত ছাড়তে হয় ফাওয়াদ খান, মাহিরা খান, মাওরা হোকানসহ একাধিক পাক তারকাকে। এরপর থেকেই আর বলিউডে দেখা যায়নি তাদের। অনেকে বলেন, মুম্বাই হামলা, পাঠানকোট হামলা যেভাবে ভারতের মানুষের মনে আঘাত দিয়েছে, তার কষ্ট সোনম কীভাবে বুঝবেন। আবার অনেকে সোনমের শুধু অর্থের উপরই ভালোবাসা রয়েছে বলেও কটাক্ষ করেন। বাড়ির কেউ সীমান্তে পাহারা দিলে সোনম আর এভাবে ফাওয়াদ খানকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে পারতেন না বলেও মন্তব্য করা হয়েছে।

ভালো অভিনয়ের সুবাদে খুব দ্রুত দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন ফাওয়াদ। তার হাতে আসতে থাকে একাধিক সিনেমা। এরপর করণ জোহরের ‘কাপুর অ্যান্ড সন্স’ সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। সর্বশেষ তাকে করণ জোহরের ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ সিনেমায় দেখা গেছে। এতে তিনি অভিনয় করেছিলেন রণবীর কাপুর, আনুশকা শর্মা ও ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের বিপরীতে।