ভিন্ন ভিন্ন ১০ ক্লাবের ‘এক’ ফুটবলার!

ছত্রিশ বছর বয়স। ইতোমধ্যেই ফুটবলকে বিদায় বলে দিয়েছেন ডেভিড এগানজো। তবে বুটজোড়া তুলে রাখার আগেই স্প্যানিশ এই ফুটবলার নিজেকে নিয়ে গেছেন ইতিহাসের পাতায়!

হ্যাঁ, ২০০০ সালে সিনিয়র ক্যারিয়ার শুরু করা এই স্প্যানিশ স্ট্রাইকার স্পেনের ভিন্ন ভিন্ন ১০টি ক্লাবে খেলার গৌরব অর্জন করেন। মাদ্রিদে জন্ম, ক্যারিয়ারের শুরুটাও করেছিলেন রামোস-রোনালদোদের ক্লাবে খেলেই।

কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চার ম্যাচের বেশি খেলা হয়নি তার। তবে মজার ব্যাপার হলো, রিয়াল মাদ্রিদ থেকেই চারবার ভিন্ন ভিন্ন চারটি ক্লাবে ধারে খেলতে যান ডেভিড এগানজো। ২০০১ থেকে ২০০৪ সালের মধ্যেই এক্সট্রিমাদুরা, এস্পানিয়ল, ভালাদোলিদ এবং লেভান্তের হয়ে খেলেন তিনি। পাঁচ ফুট ১০ ইঞ্চি উচ্চতার এই ফুটবলার চারটি করে বছর কাটিয়েছেন রেসিং সান্তাদের এবং রায়ো ভায়োকানোতে।

এছাড়াও স্প্যানিশ লা লিগার দল আলাভেস, হারকিউলেস এবং লোগোর জার্সিতে খেলেছেন ২০১৫ সালে ক্লাব ফুটবলকে বিদায় জানানো এই স্প্যানিয়ার্ড। শুধু তাই নয়, দেড় দশকের এই ফুটবল ক্যারিয়ারে ইসরাইলের বেইটার জেরুজালেম এবং গ্রীসের অ্যারিসের হয়েও খেলেছেন তিনি।

ক্লাব ফুটবলে ৩২৭ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে প্রতিপক্ষের জালে করা তার গোলের সংখ্যাও কম নয়। ৯২টি। কিন্তু শিরোপার সংখ্যাটা মাত্র এক। তবে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ হওয়ায় এই গল্পটাও নিশ্চিত বুক ফুলিয়ে ভাগাভাগি করতে পারবেন তার নাতি-নাতনিদের সঙ্গে! কিন্তু দুর্ভাগ্য এগানজোর।  অনুর্ধ্ব-১৬ থেকে ১৮ কিংবা অনুর্ধ্ব ২০ থেকে ২১ এ স্পেনের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার গৌরব অর্জন করা এগানজো কখনোই জাতীয় দলের জার্সিতে খেলতে পারেননি।