ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় দুই ভাই হত্যার বিচার দাবি

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় দুই ভাই হত্যাকে দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন। তিনি বলেন, খুনিদের পরিচয় যাই হোক, তারা খুনি, সন্ত্রাসী। তারা সমাজ, দেশ ও জাতির শত্রু। প্রকৃতি খুনিদের বিচার নিশ্চিত করা আমাদের সবার দায়িত্ব। বিষয়টিকে অবহেলা করার সুযোগ নেই।

গত ৯ নভেম্বর রাতে আলফাডাঙ্গা উপজেলার বারাসিয়া নদীর পাশের শ্মশানঘাট এলাকায় দুই ভাইকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। নিহতদের একজন ইদ্রিস মোল্যা। তিনি আলফাডাঙ্গা সদর বাজার বণিক সমিতি ও বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। অপরজন তার ছোট ভাই লাবলু মোল্যা আলফাডাঙ্গা সদর বাজার ব্যবসায়ী ও বোয়ালমারী উপজেলা যুবলীগ নেতা।

ওই হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত সভায় আরিফুর রহমান দোলন বলেন, ‘খুনিরা কোনোভাবেই যেন রাজনৈতিক প্রশয় ও প্রশাসনিক সহযোগিতা না পায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে।’

১২ নভেম্বর বিকালে আলফাডাঙ্গা উপজেলার বঙ্গবন্ধু স্মৃতিস্তম্ভ প্রাঙ্গণে আয়োজিত শোকসভায় তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা খুনের রাজনীতিতে বিশ্বাস করেন না। এই অ লকে বলা হয় আওয়ামী লীগের ঘাঁটি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ও আওয়ামী লীগ পরিবারের দুই নেতাকে হত্যা করে খুনিরা কী প্রমাণ করতে চাইল? আমি মনে করি- আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব এই হত্যাকা-ের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া। প্রয়োজনে জনমত গড়ে তুলবো। যেখানে যেতে হয় যাবো। যে করেই হোক, খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি যেন আমরা দেখতে পাই। এ ব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগিতা চাই, পুলিশের সহযোগিতা চাই, আইন-আদালতের সহযোগিতা চাই।’

শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন শেখর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এন জামাল হোসেন। আরও বক্তৃতা করেন, বোয়ালমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এম মোশাররফ হোসেন মুশা মিয়া, আলফাডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এস আকরাম হোসেন, বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সম্পাদকম-লীর সদস্য শেখ শওকত হোসেন, ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, শেখর ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইস্মরাফিল মোল্যা, সাবেক বোয়ালমারী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ রাসেল রেজা প্রমুখ। পরে আরিফুর রহমান দোলন নিহতদের বাড়িতে যান। শোকাহত পরিবারের খোঁজ নেন। শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

একই দিন আলফাডাঙ্গা উপজেলা কৃষকলীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনায় অংশ নেন আরিফুর রহমান দোলন। তিনি বলেন, ‘কেউ যেন আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি না করতে পারে, ঐক্য যেন আরও বেশি করে প্রতিষ্ঠিত করা যায় সেটি হবে আমাদের লক্ষ্য।’ ফরিদপুর জেলা কৃষকলীগের নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটিতে ফরিদপুর জেলা পরিষদের সদস্য শেখ শহীদুল ইসলাম যুগ্ম-আহবায়ক (সদস্য সচিব) মনোনীত হওয়ায় তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। কৃষক লীগ নেতা দোলন বলেন, ‘আমরা এই অ লের উন্নয়ন এবং উন্নতি আরও বেশি করে চাই। সেজন্য শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার।’

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি

SHARE