সন্তানকে স্তন্যপানরত অবস্থায় এক মহিলার গাড়ি টানতে টানতে নিয়ে যান পুলিশ

গাড়ির মধ্যে নিজের সাত মাসের শিশুকে তখন স্তন্যপান করাচ্ছিলেন মা। আচমকাই মুম্বইয়ের ট্রাফিক পুলিশ সেই অবস্থায় এসে তাঁর গাড়ি টানতে টানতে নিয়ে যান।

শনিবারের সেই ঘটনা দেখে তাজ্জব গোটা মুম্বইতো বটেই, সারা দেশ। একজন মহিলা যিনি স্তন্যপান করাচ্ছেন, সেই অবস্থায় তাঁর পরিস্থিতির দিকে বিন্দুমাত্র নজর না দিয়ে, এভাবে গাড়ি গাড়ি টানতে টানতে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা নজিরবিহীন। শুধু তাই নয়, মহিলাটি যখন একাধিকবার নিজের প্রসেক্রিপশন বের করে দেখাতে চেয়েছেন, তাঁর শারিরীক পরিস্থিতির কথা জানাতে চেয়েছেন, সেকথা শুনতেও চাননি ট্রাফিক পুলিশ। বরং তখন তিনি মোবাইলে কথা বলতেই ব্যস্ত থেকেছেন।

ওই মহিলার নাম জ্যোতি মালে। মহিলা জানিয়েছেন, গাড়িটি টেনে নিয়ে যাওয়ার আগে, তাঁকে একবারের জন্যেও গাড়ি থেকে নেমে দাঁড়াতে বলেনি ওই ট্রাফিক পুলিশ। ঘটনাটি পশ্চিম মালাডে শুক্রবার ঘটেছিল। গতকাল ঘটনার ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

এরপরই ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে ডেপুটি কমিশনারকে তদন্তের নির্দেশ দেন মুম্বইয়ের জয়েন্ট কমিশনার অফ ট্রাফিক পুলিশ অমিতেশ কুমার। ওই ট্রাফিক পুলিশ কোন পরিস্থিতিতে এই কাণ্ডটি ঘটিয়েছিলেন সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এমনকি গাড়ির মধ্যে থাকা ওই মহিলা জানান, তাঁর গাড়ি ছাড়া ওই জায়গায় সেদিন আরও দুটি গাড়ি দাঁড়িয়েছিল। কিন্তু সেগুলো টেনে না গিয়ে, তাঁর গাড়িটিই টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। এমনকি পথচলতি মানুষও কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশকে বারণ করেছিলেন, ওই ভাবে স্তন্যপানরত অবস্থায় মহিলা ও শিশুকে টেনে নিয়ে না যেতে। তবে সেই পুলিশকর্মী কারও কথাই শোনেননি। অভিযুক্ত ট্রাফিক পুলিশের নাম শশাঙ্ক রানে। তিনি কন্সটেবল পদমর্যাদায় রয়েছেন মুম্বই ট্রাফিক পুলিশে। এমনকি তিনি ওই সময় নিজের নামের ব্যাচও পড়ে ছিলেন না, যেটা মহারাষ্ট্র পুলিশের আইন বিরুদ্ধ।

 

SHARE