সৌদিতে ১১ রাজপুত্র ও ৪ মন্ত্রী আটক

সৌদি আরবের যুরবাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বে নতুন দুর্নীতি দমন কমিটি গঠনের চার ঘণ্টার মধ্যে দেশটির ১১ জন যুবরাজ, চারজন মন্ত্রী এবং ১০ জন সাবেক মন্ত্রীকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। তবে আটককৃতদের পরিচয় জানানো হয়নি।

বিবিসি জানিয়েছে, এর মধ্য দিয়ে যুবরাজ মোহাম্মদ সালমান তাঁর ক্ষমতাকে আরো বেশি শক্তিশালী করল। তবে তাঁদের কিসের অভিযোগে আটক করা হয়েছে তা এখনো পরিস্কার নয়। তবে সৌদির সম্প্রচার মাধ্যম আল-আরাবিয়া একটি নতুন অনুসন্ধার দাখিল করেছে যে, ২০০৯ সালে জেদ্দার বন্যা এবং ২০১২ সালে মার্স ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য দায়ী করে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

সৌদির সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সির খবর অনুযায়ী দেশটির দুর্নীতি দমন কমিটির গ্রেপ্তারের পরোয়ানা জারি ও বিদেশে সফরের উপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ক্ষমতা দেওয়া আছে। এছাড়া সৌদি যুবরাজ দেশটির ‘ন্যাশনাল গার্ড মিনিস্টিার প্রিন্স মাতেব বিন আবুদুল্লাহ ও নৌবাহিনীর কমান্ডার আবুদুল্লাহ বিন সুলতানকে সরিয়ে দিয়েছে।

বর্তমানে সৌদির প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা প্রিন্স মোহাম্মদ সালমান এর মধ্যদিয়ে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর উপরে পূর্ণ নিয়ন্ত্রন নিল। এর আগে সৌদি যুবরাজ বলেছেন যে মধ্যপন্থী ইসলামের দিকে তাঁর দেশ ধাবিত হচ্ছে এবং এটি সৌদিকে আধুনিক করতে তাঁর একটি কৌশল।

সম্প্রতি তিনি রিয়াদে একটি অর্থনৈতিক সম্মেলনে সৌদির কট্টরপন্থিদের খুব শিগগিরই সমূলে উৎপাটনের কথা বলেন। তেল নির্ভর এই দেশে গতবছর তিনি সামজিক ও অর্থনৈতিক খাতে একটি বড় পরিবর্তনের জন্য তার পরিকল্পনার কথা জানান।