কাশ্মিরে গণকবর চিহ্নিত করার আহ্বান মানবাধিকার সংস্থা

ভারত-পাকিস্তানের বিরোধপূর্ণ কাশ্মির সীমান্তে চিহ্নিত না হওয়া অন্তত দুই হাজার ৮০ গণকবর চিহ্নিত করার জন্য রাজ্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কাশ্মিরের মানবাধিকার সংস্থা।

নিখোঁজ সন্তানদের অভিভাবকদের সংগঠন (এপিডিপি) মানবাধিকার কমিশনকে জানিয়েছে, সেখানে তিন হাজার আটশ ৪৪ টি গণকবর রয়েছে। তার মধ্যে দুই হাজার সাতশ ১৭ টি পঞ্চ জেলায় এবং এক হাজার একশ ২৭ টি রাজোরি জেলায়।

মানবাধিকার কমিশন রাজ্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে, আগামী ছয় মাসের মধ্যে তদন্তের মাধ্যমে চিহ্নিত না করা দুই হাজার ৮০ টি গণকবর থেকে ডিএনএ সংগ্রহ করে নিখোঁজদের স্বজনের ডিএনএর সঙ্গে মিলিয়ে দেখতে।

এর আগে ২০১১ সালে গণকবরগুলো চিহ্নিত করার জন্য মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে দাবি জানানো হয়েছিল। সে সময় সরকারের গঠন করা বিশেষ একটি দল জানিয়েছিল, কাশ্মিরের উত্তর এলাকায় ৩৮ টি স্থানে অজ্ঞাত পরিচয়ে দুই হাজার সাতশ ৩০ জনের মরদেহ পুঁতে রাখা হয়েছে।

বর্তমানে মানবাধিকার কমিশন বলছে, কমিশনের পক্ষ থেকে একই ধরনের সিদ্ধান্ত জানানোর ব্যাপারে কোনো দ্বিধা নেই। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যেই তারা সরকারকে অনুরোধ করেছেন।