মাঝ আকাশে মার্কিন বিমানের অদ্ভুদ ধাক্কা!

যুক্তরাষ্ট্রের একটি চার্টার্ড বিমান দেশটির এনবিএ বাস্কেটবল টিমের খেলোয়াড়দের নিয়ে গত শনিবার রাতে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিশ থেকে ইলিনয়ে’র শিকাগো শহরে যাচ্ছিল। বিমানটি যখন ওকলাহোমা শহরের ৩০ হাজার ফুট উপরে, ঠিক তখনই দিগন্তহীন খোলা আকাশে শক্ত বস্তুর সাথে ধাক্কা খেল।তবে বড় ধরনের ঝাঁকি খেলেও বিমানের সবাই ছিল অক্ষত।

তবে মাঝ আকাশে শক্ত বস্তু থাকবে কোথায়? পরে ডেল্টা এযারলাইনসের ১০১-৬৯ ফ্লাইটটিও নির্বিঘ্নেই গন্তব্যে পৌঁছায়। কিন্তু গন্তব্যে এসে মাটিতে নামার পর সবার চোখ তো কপালে। বিমানের সামনের অংশটি একেবারে চ্যাপ্টা হয়ে গেছে। ঠিক যেন কোনো পাগলা ষাঁড় দারুণ ক্রোধে বিমানটিকে গুঁতো মেরেছে।

বিমানটি ভাড়া নিয়েছিলেন মার্কিন বাস্কেটবল দল ‘থান্ডার’। সেই দলের খেলোয়াড় রাসেল ওয়েস্টব্রোক পরে সংবাদমাধ্যমকে জানান, যাত্রার সময় বিষয়টি তাদের কাছে খুব একটা আশ্চর্যের মনে হয়নি। কিন্তু মাটিতে নেমে ধারণাই পাল্টে যায়। থান্ডার দলের অনেকেই অবশ্য বিষয়টিকে স্বাভাবিক হিসেবে দেখছেন না। কেউ কেউ বলছেন তারা ইউএফও’র সঙ্গে ধাক্কা খেয়েছিলেন। আর বিমানটির চালক ভিনগ্রহের অজানা যান দেখার দুর্লভ অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। পাইলট বলেছেন, ‘রাডারে ধরা না পড়লেও বিমানের সামনের কাঁচে এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে কোনো আলোর রেখা চলে যেতে দেখেন তিনি। আলোর রেখা বলা ঠিক হবে না, যেন বিদ্যুতের ঝলক।’