পাকিস্তান সফরে যাবে ভারত-বাংলাদেশ!

দীর্ঘ আট বছর পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে পাকিস্তানে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। এবার ২০১৮ সালে দেশের মাটিতে এমার্জিং কাপ আয়োজনের পরিকল্পনা করছে পাকিস্তান। স্বাগতিকদের সঙ্গে এ টুর্নামেন্টে অংশ নেবে বাংলাদেশসহ শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান ও ভারত। লাহোরে এক প্রেস কনফারেন্সে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রেসিডেন্ট নাজাম শেঠি এই কথা জানিয়েছেন।

সিদ্ধান্ত এখনো চূড়ান্ত না হলেও নাজাম শেঠি টুর্নামেন্ট আয়োজনের ব্যাপারে প্রায় নিশ্চিত। এ নিয়ে গাদ্দাফি স্টেডিয়ামেই একটি বৈঠকে বসেছিলেন এসিসি কর্মকর্তারা।

এ নিয়ে নাজাম শেঠি জানিয়েছেন, আগামী বছরের এপ্রিলে টুর্নামেন্ট আয়োজন করার ইচ্ছে পাকিস্তানের। আসরটি পাকিস্তানের একাধিক ভেন্যুতে হবে। এশিয়ার ছয় জাতির এই ইভেন্টে খেলতে ভারত আসবে কি না তা নিশ্চিত না। বাংলাদেশের অবস্থানও পরিষ্কার না। তবে মাঝে সময় আছে অনেক।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কার টিম বাসের ওপর লাহোরের রাজপথে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিল। তারপর থেকে পাকিস্তানে কোনো আন্তর্জাতিক দল খেলতে যায় না। একবার স্বল্পদৈর্ঘ্যের সফরে জিম্বাবুয়ে গিয়েছিল। এরপর এই বছরই পাকিস্তান সুপার লিগের ফাইনালটি হয় এই লাহোরে। সেখানেই ক’দিন আগে বিশ্ব একাদশের সাথে ৩টি ম্যাচ খেলে পাকিস্তান। বাংলাদেশের তামিম ইকবালও গিয়েছিলেন, বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলেছিলেন। এবার শ্রীলঙ্কা গেল টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচ খেলতে।

এমার্জিং কাপে সব দলেই কম বেশি জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা থাকেন। মূলত এটি অনূর্ধ্ব-২৩ টুর্নামেন্ট। ষষ্ঠ দলটিকে আসতে হবে বাছাই পর্ব থেকে।