সামরিক স্থাপনা পরিদর্শনের কোনো সুযোগ নেই: ইরান

ইরানের সামরিক স্থাপনা পরিদর্শনের পথ চিরতরে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বলে ঘোষণা করেছে তেহরান। ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান বেহরুজ কামালবান্দি এ ঘোষণা দিয়েছেন। ইরানি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র মহাপরিচালক ইউকিয়া আমানো শনিবার সন্ধ্যায় তেহরানে পৌঁছার পর এ ঘোষণা দিলেন তিনি।

কামালবান্দি বলেন, ইরানের সামরিক স্থাপনা পরিদর্শনের বিষয়টি যেমন পরমাণু সমঝোতার কোথাও নেই তেমনি পরমাণু অস্ত্র বিস্তার রোধ চুক্তির সম্পূরক প্রটোকলেও সেরকম কোনো কথা লেখা নেই। তিনি আরো বলেন, আইএইএ কেবল ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলো পরিদর্শনের অনুমতি চাইতে পারে।

ইরানের আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান বলেন, তার দেশ জাতিসংঘের কাছে ঘোষিত পারমাণবিক স্থাপনাগুলোতেই কেবল পরমাণু তৎপরতা চালাচ্ছে। কাজেই অন্য কোনো স্থান সেটি সামরিক হোক কিংবা বেসামরিক, সেখানে জাতিসংঘের পরিদর্শকদের প্রবেশ করার অনুমতি দেয়া হবে না।

তিনি পাশ্চাত্যের রাজনৈতিক চাপের কাছে নতি স্বীকার না করে নিজের পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য আইএইএ’র প্রতি আহ্বান জানান।

জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি গত ২৫ আগস্ট ইরানের সামরিক স্থাপনাগুলো পরিদর্শনের জন্য আইএইএ’র প্রতি আহ্বান জানান। হ্যালির ওই আহ্বান ছিল ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতার চেতনা বিরোধী; কারণ, ওই সমঝোতায় সামরিক স্থাপনা পরিদর্শনের অনুমতি নেই।