‘বেবিচক’ ৮ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে দুদকে তলব

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) তালিকাভুক্ত ৮ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিককে নথিপত্রসহ তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এক চিঠিতে আগামী ৫ ও ৬ নভেম্বর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের দুদক প্রধান কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়েছে। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা (উপ-পরিচালক) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ৫ নভেম্বর তলবকৃতরা হলেন- মেসার্স চৌধুরী ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের মালিক মো. মাঈনুল ইসলাম চৌধুরী, মেসার্স এস আলম অ্যান্ড সন্সের মালিক মো. ইকবাল হোসেন, মেসার্স ফেয়ার এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. আব্দুল আজিজ, মেসার্স প্রভাতী এন্টারপ্রাইজের মালিক মোস্তাফিজুর রহমান (সেগুন), মেসার্স নাইদ এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. আব্দুল মালেক।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ন্যাশনাল ট্রেডার্সসহ ৮টি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিক সিভিল এভিয়েশনের প্রধান প্রকৌশলী সুধেন্দু বিকাশ গোস্বামী ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এম. মাকসুদুল ইসলামকে নির্দিষ্ট হারে ঘুষ দিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুদক।

এ ছাড়া ৬ নভেম্বরে তলবকৃতরা হলেন- মেসার্স সগীর আহাম্মেদ এন্টারপ্রাইজের ছগির আহাম্মদ, মেসার্স নোমান এন্টারপ্রাইজের মো. দেলোয়ার হোসেন ও মেসার্স ন্যাশনাল ট্রেডার্স মো. আবদুল হামিদ।