বিশ্বের ক্ষমতাশালী পাসপোর্টের তালিকায় বাংলাদেশ

বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশ। সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় শীর্ষে সিঙ্গাপুর আর বাংলাদেশের অবস্থান ৯০তম। গ্লোবাল পাসপোর্ট পাওয়ার র‍্যাঙ্ক ২০১৭ থেকে এ তথ্য জানা গেছে। বুধবার বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী পাসপোর্টের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্ব অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ফার্ম আর্টন ক্যাপিটাল।  এরপর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ ঘোষণা দেয়া পাসপোর্ট ইনডেক্স ডেভেলপার আর্টন ক্যাপিটাল।

দ্বিতীয় শক্তিশালী পাসপোর্ট জার্মানির। তালিকায় যৌথভাবে তৃতীয় অবস্থানে আছে সুইডেন ও দক্ষিণ কোরিয়া। ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ইতালি, ফ্রান্স, স্পেন, নরওয়ে, জাপান ও যুক্তরাজ্যের পাসপোর্ট তালিকার চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। লুক্সেমবার্গ, সুইজারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া ও পর্তুগালের পাসপোর্ট আছে পরের অবস্থানে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথভাবে ষষ্ঠ অবস্থানে আছে মালয়েশিয়া, আয়ারল্যান্ড ও কানাডা।

আর সবচেয়ে কম শক্তিশালী পাসপোর্ট আফগানিস্তানের। তালিকায় আফগানিস্তানের অবস্থান ৯৪তম। কম শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় আফগানিস্তানের পরে আছে ইরাক, পাকিস্তান, সিরিয়া, সোমালিয়া ও ইয়েমেন। আর্টন ক্যাপিটালের সিঙ্গাপুর অফিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফিলিপ মে বলেন, এই প্রথম এশিয়ার কোনো দেশ এই তালিকার শীর্ষ স্থানটি দখল করল।

ক্ষমতাশালী পাসপোর্টধানীর দেশের তালিকা:

১. সিঙ্গাপুর (১৫৯ ভিসা-ফ্রি পরিষেবা)

২. জার্মানি (১৫৮)

৩. সুইডেন, দক্ষিণ কোরিয়া (১৫৭)

৪. ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ইতালি, ফ্রান্স, স্পেন, নরওয়ে, জাপান, ইউনাইটেড কিংডম (১৫৬)

৫. লুক্সেমবার্গ, সুইজারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, অস্ট্রিয়া, পর্তুগাল (১৫৫)

৬. মালেশিয়া, আয়ারল্যান্ড, কানাডা, আমেরিকা (১৫৪)

৭. গ্রিস, নিউজিল্যান্ড (১৫৩)

৮. মালটা, চেক রিপাবলিক, আইল্যান্ড (১৫২)

৯. হাঙ্গেরি (১৫০)

১০. স্লোভেনিয়া, স্লোভাকিয়া, পোল্যান্ড, লিথুয়ানিয়া, লাতাভিয়া (১৪৯)উল্লেখ্য, ওই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই ক্ষমতা কমেছে মার্কিন পাসপোর্টের।

আর্টন ক্যাপিটালের তালিকা অনুযায়ী রাষ্ট্রপুঞ্জের অন্তর্গত ১৯৩টি দেশের মধ্যে ১৭৩টি দেশেই ভিসা ছাড়া প্রবেশের অনুমতি পান সিঙ্গাপুরী পাসপোর্টধারীরা (১৫৯টি দেশে ভিসা-ফ্রি পরিষেবা, আর বাকি ১৪টি দেশে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গে মিলবে ভিসা)। এশীয় দেশ হিসেবে সিঙ্গাপুর ছাড়াও এই তালিকায় আছে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও মালেয়েশিয়া।