যাদুকরী ফুটবলে ভুলিয়ে দিচ্ছেন নেইমারের অভাব

বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে (পিএসজি) যোগ দিয়েছেন নেইমার। ভেঙে দেন দলবদলের পূর্বের সকল রেকর্ড। সঙ্গে ভেঙে যায় বার্সেলোনার আক্রমণত্রয়ী এমএসএনও।

কাতালান ক্লাবটির ভক্তরা প্রশ্ন তোলেন, নেইমারকে ছাড়া নতুন মৌসুমে কেমন করবে বার্সেলোনা? দারুণ পারফরম্যান্সের মাধ্যমে সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বার্সেলোনার মহাতারকা লিওনেল মেসি। সহজাত যাদুকরী ফুটবলে ভুলিয়ে দিচ্ছেন নেইমারের অভাব।

নেইমার চলে যাওয়ার পর বিশাল শূন্যতা সৃষ্টি হয় বার্সেলোনার আক্রমণভাগে। গেল দলবদলে শোনা যায় ফিলিপে কোটিনহো বা পাওলো দিবালাকে দিয়ে সেই অভাব পূরণ করতে চায় স্প্যানিশ জায়ান্টরা। সেখানেও ব্যর্থ কাতালানরা। দল ব্যর্থ হলেও বসে নেই মেসি। নতুন মৌসুমের লা লিগায় করেছেন ১১ গোল, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে জুভেন্টাসের বিপক্ষে দেখা পেয়েছেন হ্যাটট্রিকের। তাহলে চতুর্থবারের মতো মৌসুমে ৪০ গোল করতে যাচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন অধিনায়ক?

এমন দুর্দান্ত সময় মেসি সর্বশেষ কাটান ২০১১-১২ মৌসুমের লা লিগায়। সেই মৌসুমে একাই ৫০ গোল করেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই ফুটবলার। এরপর ২০১২-১৩ মৌসুমে ৪৬ গোল, ২০১৩-১৪ মৌসুমে ২৮ গোল, ২০১৪-১৫ মৌসুমে ৪৩ গোল, ২০১৫-১৬ মৌসুমে ২৬ গোল ও সর্বশেষ ২০১৬-১৭ মৌসুমে  করেন ৩৭ গোল। চলতি মৌসুমের লা লিগায় মেসির ঝলক দেখে বার্সেলোনা সমর্থকরা আবার আশায় বুক বাধতেই পারেন। কারণ নেইমার চলে যাওয়ার পর এখন পর্যন্ত ম্যাচ প্রতি ১.৬ গোলের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন মেসি।

রোববার লা লিগার ম্যাচে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে খেলবে বার্সেলোনা। অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ৩৪ ম্যাচ খেলে ২৭ গোল করেছেন মেসি। যার মধ্যে ২২টিই লা লিগার ম্যাচে। এই ম্যাচেও মেসির দিকে তাকিয়ে থাকবে বার্সেলোনা।