হায়দ্রাবাদে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচে কঠোর নিরাপত্তা

জমে উঠেছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ। তিন ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা। আর তারই জের ধরে হায়দ্রাবাদে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচটি ঘিরে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। প্রসঙ্গত, গুয়াহাটিতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ভারতের বিপক্ষে দাপুটে জয়ের পর অস্ট্রেলিয়ার টিম বাসে পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ঘটে। এতে নড়েচড়ে বসেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। জানা গেছে, এসময় রাজীব গান্ধী স্টেডিয়াম ঘিরে ১৮০০ নিরাপত্তা সদস্য নিয়োজিত থাকবে। এর মধ্যে রয়েছে আধাসামরিক বাহিনী। নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও ট্রাফিক সীমাবদ্ধতা পর্যবেক্ষণ করবেন পুলিশ কমিশনার মাহেশ ভাগওয়াত।

আজকের এই ম্যাচকে ঘিরে বিভিন্ন পুলিশ উইং, ট্রফিক, আইন-শৃঙ্ক্ষলা, নারীদের নিরাপত্তায় বিশেষ টিম ও দু’টি অগ্নিনির্বাপক স্কোয়াড নিযুক্ত থাকবে। স্টেডিয়ামের বিভিন্ন পয়েন্টে ৫৬টি সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। কন্ট্রোল রুম থেকে তা নিরবিচ্ছিন্নভাবে নজরদারি করা হবে। যেকোনো ধরনের নাশকতা ঠেকাতে প্রস্তুত বোম্ব স্কোয়াড।

এছাড়া ল্যাপটপ, ক্যামেরা, দূরবীক্ষণ যন্ত্র, ব্যাগ, ব্যানার, সিগারেট, লাইটার, ম্যাচবক্স (দেশলাই), কয়েন, হেলমেট, পানির বোতল, ধাতব বস্তু ও কলম নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ। পাশাপাশি পুলিশের একটি বিশেষ দল খেলোয়াড়দের বহনকারী গাড়ির নিরাপত্ত দেবে। ম্যাচ চলাকালীন স্টেডিয়ামের চারপাশের রাস্তায় গাড়ি চলাচলেও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এর আগে, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে সিরিজ জয়ে সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলে অজিরা। তবে ম্যাচ শেষে হোটেলে ফেরার পথে নিরাপত্তাজনিত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার শিকার হয় সফরকারীরা। তবে এতে কেউ হতাহত হননি।