দিনাজপুরে শারদীয় দুর্গোৎসবের মহা অষ্টমী ও কুমারী পূজা

শারদীয় দূর্গাপূজার মহাঅষ্টমীর মূল আকর্ষণ ছিল কুমারী পূজা। দিনাজপুরের রামকৃষ্ণ আশ্রমে হাজারো ভক্ত ও পূন্যার্থীর সম্মিলনে অনুষ্ঠিত হয়েছে এই কুমারী পূজা।

সকাল ১১টায় পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হলেও উজ্জয়ী ব্যানার্জী নামে এক শিশুকন্যাকে দেবী সাজিয়ে সকাল সাড়ে ১১টায় তোলা হয় পূজার বেদীতে। এরপর শুরু হয় পূজা-অর্চনা। পূজা-অর্চনায় নেতৃত্ব দেন দিনাজপুর রামকৃষ্ণ আশ্রম ও মিশনের অধ্যক্ষ স্বামী অমেয়াত্বনন্দ। এসময় উপস্থিত নারী ভক্তদের উলুধ্বনীতে মুখরিত হয়ে উঠে রামকৃষ্ণ আশ্রম প্রাঙ্গন।

দিনাজপুরে শারদীয় দুর্গোৎসবের মহা অষ্টমী ও কুমারী পূজা

দিনাজপুর জেলার মধ্যে একমাত্র রামকৃষ্ণ আশ্রমে এই কুমারী পুজা অনুষ্ঠিত হওয়ায় বিপুল সংখ্যক ভক্ত ও পুন্যার্থী এখানে সমবেত হন।

আয়োজকরা জানান, আমরা জগতমাতাকে আরাধনা করি। তিনি সকল নারীর মধ্যে মাতৃরূপে আছেন। এ উপলব্ধি সকলের মধ্যে জাগ্রত করার জন্য কুমারী পূজা। দুর্গা মাতৃরূপের প্রতীক আর কুমারী নারীর প্রতীক। কুমারীর মধ্যে মাতৃভাব প্রতিষ্ঠার জন্যই কুমারী পূজার লক্ষ্য।

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রতিনিধি