উৎপাদনশীলতা বাড়াতে ‘জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস’ উদ্যাপন

এ বছর দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে, ‘টেকসই উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধির জন্য উৎপাদনশীলতা’। এ উপলক্ষে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল প্রডাকটিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। 

জাতীয় পর্যায়ে সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের শিল্প, কৃষি ও সেবাসহ বিভিন্ন খাতে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে ২ অক্টোবর ‘জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস’ উদ্যাপন করা হবে। গতকাল শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কর্মসূচির অংশ হিসেবে ২ অক্টোবর সকাল ৮টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনসংলগ্ন সড়ক থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হবে। শিল্পসচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ্র নেতৃত্বে এতে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, শিল্প-কারখানার মালিক, শ্রমিক ও কর্মচারীরা অংশ নেবেন। এ ছাড়া এদিন সকাল ১১টায় রাজধানীর সিরডাপ অডিটরিয়ামে ‘টেকসই উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধির জন্য উৎপাদনশীলতা’ শীর্ষক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

ন্যাশনাল প্রডাকটিভিটি অর্গানাইজেশন (এনপিও) আয়োজিত এ সেমিনারে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এতে এফবিসিসিআইর সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) বিশেষ অতিথি এবং শিল্পসচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সভাপতিত্ব করবেন। দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে বাংলাদেশ টেলিভিশন টক শো সম্প্রচার করবে। জাতীয় দৈনিকে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ হবে। মোবাইল ফোন অপারেটররা খুদে বার্তা ও ভয়েস মেইল প্রেরণ করে উৎপাদনশীলতা বিষয়ে জনগণকে সচেতন করবে।

এ ছাড়া, দেশব্যাপী জেলা ও উপজেলা পর্যায়েও দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।