উইকেটের জন্য মরিয়া টাইগার বোলাররা

যেভাবে ছুটছে দক্ষিণ আফ্রিকার দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মার্করাম এবং এলগার সেটা আশংকাজনক। মাত্র ২০ ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে ৭১ রান উঠেছে। অন্যদিকে টাইগার বোলারদের বেশ কষ্ট করতে হচ্ছে উইকেটের জন্য। পিচও ব্যাটিং বান্ধব বোঝা গেছে শুরু থেকেই।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ
ঘরের মাটিতে অনেকদিন ধরেই সাদা পোশাকে দারুণ ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ। কিছুদিন আগেই অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে একটি টেস্ট জিতেছে টাইগাররা। দেশের বাহিরেও শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টেস্ট সিরিজ ড্র করেছে।

কিন্তু ১৭ বছর ধরে টেস্ট খেলুড়ে একটা দেশকে পা মাটিতেই নামিয়ে রাখলেন দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। তিনি দেশ ছাড়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে বলেন আমরা এখনও ছোট দল। এখনও অনেক কিছু শেখার আছে আমাদের। আর দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে খুব একটা ওদের কন্ডিশনে খেলাও হয়নি তেমন একটা। তাই কন্ডিশন বুঝে ভালো খেলাটাই প্রথম লক্ষ্য হিসেবে মানছেন মুশফিক।

আর টাইগার শিবিরে সবচেয়ে বড় খারাপ খবর হচ্ছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান টেস্ট ক্রিকেট থেকে ছুটি নিয়েছেন ছয় মাসের জন্য। তাই তাকে ছাড়া দল কেমন করে সেটাও দেখার বিষয়। অন্যদিকে তামিম আর সৌম্য সরকার ইনজুরিতে পড়লেও তামিম সেরে উঠেছেন। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত সৌম্যর জন্য অপেক্ষা করবে।

আগে বাংলাদেশ কোন সময়ই টেস্টে প্রোটিয়াদের হারাতে পারেনি বলে এখনও যে পারবে না সেটা অবশ্য মানছেন না মুশফিক। ভালো খেললে আর নিজেদের যার যা কাজ সেটা ঠিক মত করতে পারলেই জয় পাওয়া সম্ভব বলে বিশ্বাস করেন তিনি।

অপরদিকে প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি বেশ স্বস্তিতে আছেন সাকিব আল হাসান দলে না থাকার কারণে। কিন্তু তিনি ফন্দি আটছেন বাংলাদেশকে পেস অ্যাটাক দিয়ে ঘায়েল করার। কারণ তাদের পিচ গুলোই পেস সহায়ক হয়ে থাকে সবসময়। যদিও এটাই উপযুক্ত সময় সব কটূক্তির সমুচিত জবাব দেওয়ার।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন মুশফিকুর রহিম। প্রথম টেস্টে আজ কারা খেলছেন ইতিমধ্যেই উভয় দলের পক্ষ থেকে তা জানানো হয়েছে। সে তালিকায় যাদের নাম রয়েছে তারা হলেনঃ

বাংলাদেশ দলঃ তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মমিনুল হক, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), লিটন দাশ,সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান,তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম,মুস্তাফিজুর রহমান।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলঃ ডিন এলগার, এইডেন মার্কাম, হাশিম আমলা, তেমবা বাভুমা, ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), কুইন্টন ডি কক (উইকেট কিপার), এন্ডিল ফাহলুভুক, কেশভ মহারাজ, কাগিসো রাবাডা, মরনে মরকেল, ডুয়েন অলিভিয়ের।