‘প্রবৃদ্ধি বাড়লেও কর্মসংস্থান সুযোগ সে তুলনায় বাড়ছে না’

বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি বাড়লেও কর্মসংস্থান সুযোগ সে তুলনায় বাড়ছে না। সাম্প্রতিক সময়ে কর্মসংস্থানের সুযোগ কমেছে।তাই সবার জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি বাংলাদেশের অর্থনীতির জন্য মূল চ্যালেঞ্জ বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

বুধবার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করে প্রতিবেদনের বিষয়বস্তু সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের প্রধান অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন। ২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত প্রতি বছর ৩ দশমিক ১ শতাংশ হারে কর্মসংস্থানের ক্ষেত্র বেড়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে ২০১১-২০১৬ পর্যন্ত প্রতি বছর গড়ে ১ দশমিক ৮ শতাংশ হারে কাজের সুযোগ বৃদ্ধি পেয়েছে। কর্মহীনতার এই নেতিবাচক প্রভাব যুব ও নারীদের ওপর বেশি পড়েছে।

তিনি বলেন প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের উপরে সেটা নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। কিন্তু এ প্রবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে কর্মসংস্থান বাড়ছে না। আমাাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রে গতি কমে গেছে। গার্মেন্ট সেক্টরে কর্মসংস্থান কমেছে। বিশেষ করে নারীদের কর্মসংস্থান এ সেক্টরে বেশি হলেও সম্প্রতি তা কমে গেছে।

তিনি আরও বলেন, কর্মসংস্থান সৃষ্টির চালিকা দুর্বল। রফতানি ও রেমিট্যান্স কমে গেছে, যেটা কর্মসংস্থানের অন্যতম উৎস। গতকাল মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জানিয়েছেন, ২০২৪ সালের মধ্যে সবার কর্মসংস্থান হবে। তখন দেশে কোনো গরিব থাকবে না। শুধু ৭ শতাংশ বাদে যারা শারীরিকভাবে অক্ষম সরকার তাদের সাহায্য করবে।