রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য মজুদ করা ত্রাণ কেন্দ্রে ডাকাত দলের আক্রমণ

বাংলাদেশে আশ্রয়কৃত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ত্রাণ আসছে বিভিন্ন সংস্থা থেকে। গত সোমবার রাতে ‘এক টাকায় আহারে’র ওয়্যারহাউজে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য মজুদ করা ত্রাণ ছিনিয়ে নিতে ডাকাত দল আক্রমণ করে। ওয়্যারহাউজের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে দশ টনের মতো বিস্কিট-চাল-ডাল-তেল-ঔষধ ভিন্ন ভিন্ন স্থানে মজুদ করাছিল, আর সেখানে রাত্রি যাপনের জন্য নিদিষ্ট একজন স্বেচ্ছাসেবক উপস্থিত ছিলেন।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য মজুদ করা ত্রাণ কেন্দ্রে ডাকাত দলের আক্রমণ

সামাজিক গন মাধ্যম ফেসবুকে ‘এক টাকায় আহারে’র নিজস্ব পাতায় তথ্যটি পাওয়া যায়।

 সারাদিনের পরিশ্রম শেষে যখন স্বেচ্ছাসেবকরা ঘুমে ঢলে পড়ছে, তখন ৫-৬ জনের ডাকাত দল ঘরে ঢুকে বাতি নিভিয়ে দেয়। অন্ধকার স্বেচ্ছাসেবকের গলা চেপে ধরে একজন, আরেকজন চোখে টর্চ ধরে থাকে না দেখার জন্য। চিৎকার করলে গলা টিপে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে তাঁরা তুলে নিতে চায় মজুদের এক টন তেল। স্বেচ্ছাসেবকটি অনুনয় করে ত্রাণের পণ্য না নিতে, বিনিময়ে তাঁর ব্যক্তিগত দুই মোবাইল আর বিদ্যানন্দের অফিসিয়াল মোবাইল দিতে রাজী হন। ডাকাত দল সে তিন মোবাইল বুঝে নিয়ে মিলিয়ে যায় অন্ধকার পথে।

এমন ঘটনায় শঙ্কিত হয়ে পড়ে স্বেচ্ছাসেবকটি। ট্রমা কাটিয়ে উঠার পর ত্রাণ কার্যক্রম স্থগিত করে ঢাকায় ফিরে যাওয়ার কথা ভাবছিলেন তিনি। শরণার্থী ক্যাম্পে এ ধরনের হামলা এর আগে কখনো এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। ঘটনাটি পর্যবেক্ষণের ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ নেবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ, এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে তার জন্য পর্যাপ্ত নিরাপদ ব্যবস্থা আরও জোরদার করা হবে।