এক মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব নাকচ করে দিল কাভানি, পেনাল্টি নেবেন নেইমার

প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) পেনাল্টি-ফ্রিকিক কে নেবেন? নেইমার নাকি এডিনসন কাভানি? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে ফিরছে পিএসজির সমর্থকরা। দুই তারকার দ্বন্দ্ব মেটাতে রীতিমতো রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে ফরাসি ক্লাবটির কর্মকর্তাদের। ফরাসি সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা গেছে নেইমারকে পেনাল্টি ছেড়ে দিতে কাভানিকে এক মিলিয়ন ইউরো বোনাসের প্রস্তাব দিয়েছেন পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি। তবে একদিন যেতে না যেতেই নতুন মোড় নিয়েছে এই ঘটনা। কাভানিকে দেওয়া অর্থের প্রস্তাবের খবর অস্বীকার করেছে ক্লাবটি। 

পিএসজি সুত্রে ফরাসি ক্রীড়া দৈনিক লা পারিসিয়ান এক প্রতিবেদনে জানায়, ‘নেইমারকে পেনাল্টি কিক ছেড়ে দেওয়ার জন্য কাভানিকে পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি এক মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব দেননি। অর্থের বিনিময়ে কাভানিকে পেনাল্টি কিক নেওয়া থেকে বিরত রাখার খবরটি সত্য নয়। এই গুঞ্জনের অবসান ঘটাতে যত দ্রুত সম্ভব আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে পিএসজি।’

লিওর বিপক্ষে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের ম্যাচে পেনাল্টি ও ফ্রি-কিক নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয় নেইমার-কাভানির মধ্যে। এরপর গুঞ্জন ছড়ায় ড্রেসিংরুমে এই দুই তারকার মধ্যে নাকি হাতাহাতিও হয়েছে! ইতিমধ্যে সেই গুঞ্জন ডালাপালাও ছড়িয়েছে নানা দিকে। ফরাসি সংবাদ মাধ্যমে ভেসে বেড়াচ্ছে বিভিন্ন মুখরোচক গল্প। এখানেই শেষ নয়! আরও জানা যায় কাভানিকে বিক্রি করে দেওয়ার জন্য পিএসজি সভাপতিকে অনুরোধও করে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। পিএসজি সভাপতি খেলাইফিও চান পেনাল্টি ও ফ্রি-কিকের দায়িত্ব নেইমারের উপর ছাড়তে।

গুঞ্জনের তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন পেনাল্টির দায়িত্ব নেইমারের উপর ছেড়ে দেওয়ার জন্য কাভানিকে এক মিলিয়ন ইউরো বোনাসের প্রস্তাব। অন্যদিকে লা’ইকুপের দাবি কাভানি এক মিলিয়ন ইউরোর প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন।

কাভানির এমন সিদ্ধান্তের পেছনে অন্য একটি কারণ রয়েছে বলে মনে করছে ফরাসি গণমাধ্যম। কাভানির সঙ্গে পিএসজির চুক্তিটা এমন, কোনো মৌসুমে ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ গোল করলে বাৎসরিক বেতনের সঙ্গে বোনাস হিসেবে এক মিলিয়ন ইউরো বেশি পাবেন তিনি। এ কারণেই ক্লাবের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন উরুগুইয়ান এই স্ট্রাইকার।