প্রায় ৮ কোটি টাকার মাল্টা-আপেল ধ্বংস করবে  কাস্টমস

নষ্ট হওয়া ৫ লাখ ১৫ হাজার কেজি মাল্টা ও আপেল এবার ধ্বংস করার আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। যার আমদানি মূল্য প্রায় ৩ কোটি টাকা। আর বাজার মূল্য প্রায় ৮ কোটি টাকা।

বিদেশি মুদ্রা খরচ করে মাল্টা ও আপেল কিনেছিলেন ব্যবসায়ীরা। মান খারাপ থাকায় বা দ্রুত খালাস না করায় সেই ফল শীতাতপনিয়ন্ত্রিত কনটেইনারে থেকেও নষ্ট হয়ে গেছে।  আগামীকাল সোমবার এসব ফল ধ্বংস করার জন্য সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এসব ফল নষ্ট হওয়ায় আমদানিকারকের পাশাপাশি আমদানির সঙ্গে যুক্ত সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানই লোকসান গুনেছে। এই যেমন আমদানিকারক ফল খালাস না করায় বা নিলামে তুলে বিক্রি করতে না পারায় রাজস্ব জমা পড়েনি কাস্টমসের তহবিলে। ফলভর্তি কনটেইনার বন্দর চত্বরে রাখার ভাড়াও পায়নি বন্দর কর্তৃপক্ষ। শিপিং এজেন্টও কনটেইনারের ক্ষতিপূরণ মাশুল পায়নি। সব পক্ষের লোকসানের ভিড়ে শুধু লাভের মুখ দেখেছে বিদেশের রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো। কারণ, ফল রপ্তানি করে তারা ডলার আদায় করে নিয়েছে।

কাস্টমস কর্তৃপক্ষ এবার ধ্বংসের তালিকায় রেখেছে ২১টি কনটেইনার (প্রতিটি ৪০ ফুট লম্বা) পণ্য। এর মধ্যে মাল্টার পরিমাণ ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৫২০ কেজি। আপেলের পরিমাণ ৪৭ হাজার ৮৮৭ কেজি। এ ছাড়া রয়েছে ১২ হাজার ৬৫০ কেজি পেঁয়াজ।