দিনাজপুরে পৃথক পৃথক বজ্রপাতে নারীসহ ৮ জনের প্রাণহানি

দিনাজপুরে ৪টি উপজেলায় পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় চারজন নারীসহ ৮জনের প্রাণহাণির ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে বিরল উপজেলার রাজারামপুর গ্রামে একই সঙ্গে বজ্রাঘাতে দুইজন নারীসহ ৫ জন কৃষি শ্রমিকের মৃত্যু ঘটেছে। এসময় আহত আরো ৭ কৃষি শ্রমিককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে খানসামা উপজেলার দুয়ানি গ্রামে দ্বিনবন্ধু রায় ও পরে বোচাগঞ্জ উপজেলার বনগাও গ্রামে গীতারানি বজ্রপাতে মারা যায়। অপর দিকে আজ ভোরে চিরিরবন্দর উপজেলার সাইতারা ইউনিয়নের চকরামপুর গ্রামে বজ্রবৃষ্টির সময় গোয়ালঘরে গরুকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেবার চেষ্টার সময় বজ্রাঘাতে শহিদুল ইসলামের স্ত্রী হালিমা বেগম প্রাণ হারিয়েছে। এসময় তার গরুটিও মারা গেছে।

বিরলের ঘটনায় স্থানীয়রা জানান, কৃষি জমিতে কাজ করার সময় দুপুর আড়াইটার দিকে বজ্রবৃষ্টি শুরু হলে জমির মাঠে বিশ্রাম নেয়ার খড়ের তৈরী ছোট একটি কুড়ে ঘরে আশ্রয় নেয় ১২জন কৃষি শ্রমিক। এসময় ওই ঘরের উপর বজ্রপাত ঘটলে আগুন ধরে ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এসময় ধটনাস্থলে ২জন নিহত হয় এবং বাকি ১০ জনকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আরো ৩জনকে মৃত ঘোষনা করেন। ওই ঘরে আশ্রিতদের মধ্যে নারী শ্রমিক মুক্তিরানী, বনিতা রায় ও মেছের আলী, শকুউদ্দিন এবং কুশন চন্দ্র রায় নিহত হয়েছে।

এসময় আহত কৃষি শ্রমিক শুকুমার রায়, মল্লিক রায়, জ্যোৎস্না রানী, বলিরাম সাইদুল এবং ললিতের শরীর ঝলসে গেছে। তাদেরকে উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে দিনাজপুর আজ বজ্রপাতে নিহতর সংখ্যা দাড়ালো ৮জনে।

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রতিনিধি