আশুলিয়ায় শ্রমিক পল্লীতে আগুনে দগ্ধ ৪

আশুলিয়ায় শ্রমিক পল্লীতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ডের ফলে নারী ও শিশুসহ একই পরিবারের চার জন দগ্ধ হয়েছেন। শুক্রবার রাত সাতটার দিকে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার মনির মার্কেট কাদের মুহুরীর বাড়িতে এ আগুনের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

আগুনে দগ্ধরা হচ্ছেন, নাসিমা বেগম ও তার আট মাসের শিশু সন্তান নাদিম, বোন সান্তা ও বোনের স্বামী সোহেল রানা। দগ্ধদের মধ্যে নাসিমা, নাদিম ও সোহেল রানাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়রা ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত সাতটার দিকে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার মনির মার্কেটে কাদের মুহুরীর বাড়ির একটি কক্ষ থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেন স্থানীয়রা। মুহূর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা বাড়ির অন্যান্য কক্ষগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। আগুন পাশের ফজলুল হকের বাড়িতেও ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়ার পর আশপাশের বিভিন্ন উৎস থেকে পানি সংগ্রহ করে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করেন।

এদিকে আগুন দ্রুত ওই বাড়ির অনান্য কক্ষগুলোতে ছড়িয়ে পড়ায় কক্ষের ভেতর এক নারী ও শিশুসহ চার জন আটকা পড়ে অগ্নিদগ্ধ হয়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে পাশের নারী ও শিশু হাসপাতালে ভর্তি করে। এদের মধ্যে তিন জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। প্রায় দেড় ঘণ্টার চেষ্টার পর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আব্দুল হামিদ আগুন লাগার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর তারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে তিনি কিছুই জানাতে পারেননি।