‘দিনটা আমাদের ছিল না, বিশেষ করে গোলের সামনে’ 

লা লিগায় ৫ ম্যাচ শেষে ১৫ পয়েন্টের মধ্যে মাত্র ৮ পয়েন্ট পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। শীর্ষ দল বার্সেলোনার চেয়ে পিছিয়ে পড়েছে তারা ৭ পয়েন্টে। শিরোপা ধরে রাখার মিশনে স্বাভাবিকভাবে এটা বড় ধাক্কা রিয়ালের জন্য। তারপরও শঙ্কায় দিন কাটাতে চান না কোচ জিনেদিন জিদান ও অধিনায়ক সের্হিয়ো রামোস।

এ মৌসুমে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে লিগের তিন ম্যাচ খেলে একটিতেও জিততে পারেনি রিয়াল। ঘরের মাঠে তাদের এমন বাজে শুরু ২০১১ সালের পর প্রথম। বুধবার রিয়াল বেতিসের কাছে হেরেই গেলো তারা। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও তাদের হার ঠেকাতে পারেননি।

তবে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু দেখছেন না জিদান, ‘পরিস্থিতি অনেক বেশি জটিল হয়ে পড়েছে মনে করি না আমি। আমরা পয়েন্ট হারিয়েছি, কিন্তু এখনও অনেক ম্যাচ বাকি। নিজ মাঠে তিনটি বাজে ম্যাচের কারণে আমাদের সব পরিশ্রম ধূলিস্মাৎ হয়ে যাবে না।’

টানা ৭৩ ম্যাচ গোল করে পেলের সান্তোসের সঙ্গে রিয়াল বিশ্ব রেকর্ডে ভাগ বসায় সোসিয়েদাদের বিপক্ষে জিতে। কিন্তু বুধবার সেই ধারায় বাধ সাধলো বেতিস, এককভাবে রেকর্ড নিজের করতে পারলো না স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ২০১৬ সালের এপ্রিলের পর প্রথমবার গোল পায়নি রিয়াল। এনিয়ে জিদান বলেছেন, ‘আজ বল ভেতরে যেতে চাচ্ছিল না। এটাই ফুটবল। শঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। সান সেবাস্তিয়ানে (রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে) আমাদের ভালো ম্যাচ হয়েছিল। দুশ্চিন্তা করবেন না।’

দলের সতীর্থ ও ভক্তদের শান্ত থাকতে বলেছেন রামোস। ম্যাচ শেষে তিনি বলেছেন, ‘দিনটা আমাদের ছিল না, বিশেষ করে গোলের সামনে। আমরা ভালো খেলতে পারিনি, কিন্তু অনেক সুযোগ তৈরি করেছিলাম। আমাদের এগিয়ে যেতে হবে, পরের ম্যাচে মনোযোগ দিতে হবে। অতীতে পয়েন্ট হারানোর পরও আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম। আমাদের শান্ত থাকতে হবে। কারণ এখনও অনেক ম্যাচ আছে।’

লা লিগায় জয়ের ধারায় ফিরতে আগামী শনিবার বার্নাব্যু থেকে বেশ দূরের মাঠে নামবে রিয়াল, প্রতিপক্ষ দেপোর্তিভো আলাভেস। গোল ডটকম