মেক্সিকোতে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা দেড়শ ছাড়িয়েছে

সাত মাত্রার চেয়ে বেশি শক্তিশালী এ ভূমিকম্পে রীতিমত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে বহু ভবন, যার মধ্যে রয়েছে একটি স্কুল যেখানে আটকা পড়েছে অনেক শিশু।

৭.১ মাত্রার ভূমিকম্পে যখন মেক্সিকো কেঁপে উঠলো তখন দেশটির মানুষ আসলে অংশ নিচ্ছিলো ভূমিকম্পের মহড়ায়।আবার ৩২ বছর আগে এ দিনেই এক ভয়াবহ ভূমিকম্পে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছিলো মেক্সিকো।

যদিও দেশটি একটি ভূমিকম্প প্রবণ একটি এলাকায় আর এ মাসের শুরুতেই দেশটির দক্ষিণে ৮ মাত্রার এক ভূমিকম্পে নিহত হয়েছিলো ৯০ জন। তবে এবার কেন্দ্রস্থলে সাত মাত্রার চেয়ে বেশি শক্তিশালী ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতির মাত্রা ব্যাপক হওয়ার আশংকা করা হচ্ছে।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভের তথ্য মতে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল রাজধানী মেক্সিকো সিটির চেয়ে মাত্র ৭৫ মাইল দূরে। শুধু মেক্সিকো সিটিতেই এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৪৯।

ভূমিকম্পের কারণে রাজধানী এখন বিদ্যুৎ হীন ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। রাজধানীকে একটি স্কুল থেকেই আটটি শিশু আর এক শিক্ষকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে উদ্ধার কর্মীরা। মেক্সিকো বিশ্বের অন্যতম ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা এবং প্রায় বিশ লাখ মানুষ সেখানে বাস করে।

ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ার সাথে সাথেই বহু মানুষ রাস্তায় নেমে আসে কিন্তু তারপরেও ধ্বংসস্তূপে চাপা পড়ে আছে অনেকেই।