সঞ্জয় দত্ত জেল খাটছেন, জানতই না তার ছেলে-মেয়েরা!

অস্ত্র মামলায় সশ্রম কারাদণ্ড পেয়ে বলিউডের অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত পুনের ইয়েরাওয়াড়া কারাগারে জেল খাটছিলেন। সেইসব দিন যতটা কঠিন ছিল অভিনেতার কাছে ঠিক ততটাই কঠিন ছিল তার পরিবারের জন্যও।

বিশেষ করে তার স্ত্রী মান্যতার জন্য। কারণ এই কয়েকবছর একাই সামলেছেন তার সন্তানদের, শুধু দায়িত্বই নয় বাচ্চাদের নানা প্রশ্নের উত্তরও দিতে হয়েছে তাকে। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেইসব কঠিন সময়ে কীভাবে মান্যতা তার পাশে দাঁড়িয়েছেন, সে কথাই বললেন সঞ্জয় দত্ত।

তিনি বলেন, যে সময়টা তিনি জেলে কাটিয়েছেন তখন তার ছেলে ও মেয়ে খুবই ছোট ছিল, এতটাই ছোট যে তাদের বোঝানোই মুশকিল ছিল যে তাদের বাবা এতদিন ধরে কোথায় আছে। জেল কী, এই ধারণাটাই তো ছিল না তাদের। সঞ্জয় প্রথমেই মান্যতাকে বলেছিলেন যেন কখনওই বাচ্চাদের নিয়ে জেলে না আসেন তিনি। তাই মান্যতা কখনও ছেলে-মেয়েকে জানতেই দেননি যে, তাদের বাবা জেলে রয়েছেন। তাদের বরাবর মান্যতা বলেছেন, বাবা বিদেশে নতুন ছবির শুটিংয়ে গেছেন, খুব তাড়াতাড়িই ফিরে আসবেন।

কিন্তু এতে মোটেই সন্তুষ্ট ছিল না তারা। বারবারই মায়ের কাছে আবদার জুড়তো বাবাকে ফোন করার জন্য। সেসময় সন্তানদের মিথ্যে বলতেন মান্যতা, তিনি বাচ্চাদের শান্ত করার জন্য বলতেন, সঞ্জয় একটি পর্বতে শুটিং করছেন যেখানে মোবাইলের নেটওয়ার্ক থাকে না। তবে পনেরো দিন অন্তর জেল থেকে ফোন করার সুযোগ পেতেন সঞ্জয়। তখনই কথা বলতেন ছেলে মেয়ের সঙ্গে। এখন অবশ্য তার ছেলে মেয়েরা জানে যে, সঞ্জয় এতদিন কোথায় ছিলেন, তবে পুরো ঘটনাটা জানে না। সঞ্জয়ের এখন অপেক্ষা তাদের বড় হওয়ার। কারণ তারা বড় হলে সমস্ত ঘটনাটা তাদের বিস্তারিত জানাতে চান অভিনেতা।