ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করলেন সুষমা

নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ সভার ৭২তম বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দেয়ার ফাঁকে যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের সঙ্গে ত্রিপাক্ষিক বৈঠকে সুকৌশলে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করলেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। প্রতিবেশী দেশের নাম সরাসরি না-করলেও ঘুরিয়ে তিনি উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রের বিস্তারের সঙ্গে পাকিস্তানের যোগ থাকার অভিযোগ করেন সুষমা স্বরাজ। কিম জং উনের পরমাণু অস্ত্রপ্রসারে কাদের মদত রয়েছে, তা তদন্ত করে দেখার আর্জি জানান তিনি।

নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী টারো কোনোর সঙ্গে বৈঠকে পিয়ংইয়ং-এর সাম্প্রতিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার প্রসঙ্গ তুলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেন, কারা পরমাণু অস্ত্রপ্রসারে মদত দিচ্ছে তা তদন্ত করে দেখে শাস্তি দেয়া উচিত। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রপ্রসারের পেছনে হাত রয়েছে পাকিস্তানের- দীর্ঘদিন ধরে এমনটাই অনুমান করা হয়।

সোমবার ত্রিপাক্ষিক বৈঠকের পর ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার জানিয়েছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী উত্তর কোরিয়ার সাম্প্রতিক কাজকর্মের প্রসঙ্গে বৈঠকে তুলে বলেন, পরমাণু অস্ত্রপ্রসারে কাদের যোগ রয়েছে তা তদন্ত করে দেখে তাদের শাস্তি দেয়া উচিত।’

পাকিস্তান-উত্তর কোরিয়া পরমাণু যোগাযোগের প্রসঙ্গেও আগে থেকেই নানা কথা শুনেছেন মার্কিন প্রশাসকরা। ২০০৪ সালে পাকিস্তানের পরমাণু বোমার জনক হিসেবে পরিচিত আব্দুল কাদির খান নিজেই স্বীকার করে নিয়েছিলেন যে, পাকিস্তানের পরমাণু বোমা সংক্রান্ত গোপন তথ্য ও নথি তারা ইরান, উত্তর কোরিয়া ও লিবিয়াকে বিক্রি করেছেন।

গত সপ্তাহে বুলেট ট্রেনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে এসে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর যৌথ বিবৃতিতেও সন্ত্রাস ও বিশ্বশান্তি নষ্টের প্রশ্নে উঠে এসেছিল পাকিস্তানের নাম।