শিখ গুরুকে অপমানের অভিযোগে ‘‌তারক মেহতা’‌ নিষিদ্ধ করার দাবি

দশম শিখ গুরুকে অপমান করার অভিযোগে ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় কমেডি ধারাবাহিক ‘‌তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’‌–কে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলল দেশটির শিরোমণি গুরদ্বার প্রবন্ধক কমিটি বা এসজিপিসি।

২০০৮ সাল থেকে সনির ‘‌সাব চ্যানেলে সম্প্রচারিত হচ্ছে ‌‘‌তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’ কমেডি ধারাবাহিকটি। তারপর থেকে টানা দর্শকদের বাহবা কুড়িয়ে আসছে ধারাবাহিকটি। দৈনন্দিন সমস্যা, নিত্যনতুন ব্যতিক্রমী চিন্তাধারা তুলে ধরায় শো’র টিআরপি বরাবরই প্রথম সারিতে। এই ধারাবাহিকে প্রায়ই কুসংস্কার, ধর্মীয় গোঁড়ামির বিরোধিতা করা হয়ে থাকে।

সেই ধারাবাহিকতায় দশম শিখ গুরুর আদলে গঠিত একটি চরিত্র তুলে ধরা হয়েছিল এতে। যা শিখ সম্প্রদায়ের মূল চিন্তাধারায় আঘাত করে বলে অভিযোগ আনা হয়েছে। এসজিপিসির অভিযোগ, ওই সিরিয়ালে দশম শিখ গুরু গোবিন্দ সিং–এর অনুকরণে তৈরি রোশন সিং সোধি চরিত্রটিতে দশম শিখ গুরুকে অপমান করা হয়েছে। শিখ ধর্মের নিন্দা করা হয়েছে।

এসজিপিসি’র প্রধান কৃপাল সিং বাডুঙ্গা বলেছেন,‘‌কোনও অভিনেতা বা চরিত্রেরই নিজেকে গুরু গোবিন্দ সিং’র সমকক্ষ ভাবা উচিত নয়। এ ধরনের অভিনয় অক্ষমণীয় অপরাধ।’ তার অভিযোগ, ওই এপিসোডে দেখানো চরিত্র দেখে অপমানিত বোধ করেছে পুরো শিখ সম্প্রদায়।

এই ঘটনায় চ্যানেল কর্তৃপক্ষ এবং সিরিয়াল নির্মাতারা শিখ সম্প্রদায়ের শীর্ষ সংগঠন থেকে সতর্ক বার্তা পেয়েছেন।