পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘনকারীদের কঠোর জবাব দেবে ইরান

ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, তেহরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু ইস্যুতে স্বাক্ষরিত বহুপাক্ষিক পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকা সরে গেলে ওয়াশিংটনকে স্পষ্ট সমঝোতা লঙ্ঘনকারী হিসেবে গণ্য করা হবে। জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে রুহানি বর্তমানে নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন। সেখানে একদল প্রবাসি ইরানির সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রুহানি বলেন, ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে সাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করা হলে ইরান এ বিরুদ্ধে কঠোর জবাব দেবে। তিনি আরো বলেন, “সমঝোতা থেকে সরে যাওয়ার অর্থ হচ্ছে একটি সরকারের রাজনৈতিক অঙ্গীকারকে পদদলিত করা। এতে গর্ব করার কিছু নেই।” রুহানি বলেন, “প্রতিটি ইতিহাস জুড়েই ইরানি জাতি তাদের প্রতিশ্রতি মেনে চলেছে। যতদিন অন্যান্য পক্ষ পরমাণু সমঝোতা মেনে চলবে ইরানও এর ধারাগুলো পুরোপুরি মেনে চলবে।”

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, “ইরান নিজে থেকে কখনোই এ আন্তর্জাতিক সমঝোতা লঙ্ঘন করবে না। তবে অন্যান্য পক্ষ যদি ইরানি জাতির অধিকার লঙ্ঘনের চেষ্টা করে তাহলে তার দেশ এর বিরুদ্ধে নিশ্চিত জবাব দেবে।” ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যকার পরমাণু সমঝোতা বাতিল করবেন বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হুমকি দিয়ে আসছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে ট্রাম্প বলেছিলেন, প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে তিনি ওই সমঝোতা পর্যালোচনা করে দেখবেন এবং প্রয়োজনে বিষয়টি নিয়ে আবার আলোচনা শুরু করবেন।