তিন দশক পেরোল জিআইএফ ভিডিও 

সব ধরনের প্রতিক্রিয়া কখনও ইমোর মাধ্যমে প্রকাশ করা সম্ভব নয়। তাই হয়তো খানিকের বিনোদন দিতে নতুন জিআইএফ ঠাঁই করে নিয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মনে। বহুল ব্যবহৃত জিআইএফ ভিডিও তৈরির আজ বর্ষপূর্তি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আজ থেকে ৩০ বছর আগে ১৯৮৭ সালের এই দিনে গ্রাফিক্স ইন্টারচেঞ্জ ফরম্যাটটি (জিআইএফ) তৈরি করেছিলেন কম্পিউটার প্রোগ্রামার স্টিভ উইল হোয়াইট। ৯০ এর দশকে প্রথম বারের মতো লিগ্যাল কমেডি ড্রামার অ্যালি ম্যাকবিল নামে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।সেখানে একটি প্যান্ট পড়া বাচ্চাতে নিজের মতো করে নাচতে দেখা যায়। সাম্প্রতিক সময়ে কাউকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠানোর পাশাপাশি জিআইএফের ব্যবহার আরও বেশি বিস্তৃত হয়েছে। একটা সময় ছিল যখন জিআইএফ লোড করার জন্য অনেক সময় ধরে অপেক্ষা করতে হতো। বর্তমানে মাল্টিপারপাস বিটম্যাপ ইমেইজ ফরম্যাটটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে ইন্টারনেট সংস্কৃতির একটি অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ইন্টারনেট দুনিয়ায় জিআইএফের ব্যবহার অনেক পুরানো হলেও ফেইসবুকের ম্যাসেঞ্জারে এটি যুক্ত হয় ২০১৫ সালে। ফেইসবুকের পথ অনুসরণ করে ২০১৬ সালে টুইটারও নিজেদের সাইটে জিআইএফের ফিচার যুক্ত করে।