হাক্কানি নেটওয়ার্কের দৌরাত্ম্য বন্ধ করতে মার্কিন ড্রোন হামলা

সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে নিয়মিতভাবে হুঁশিয়ারি দিচ্ছে আমেরিকা। সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে নিয়মিতভাবে হুঁশিয়ারি দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। কথা না শুনলে আর্থিক সাহায্য বন্ধের ইঙ্গিত দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

জামাত, তালেবান, হাক্কানি নেটওয়ার্কের দৌরাত্ম্য বন্ধ করতে ইসলামাবাদের ভরসায় না থেকে যুক্তরাষ্ট্র এবার নিজেদের মতো পাকিস্তানে অভিযান চালাচ্ছে। সেই সূত্রে এবার মার্কিন ড্রোন হামলা হল হাক্কানি গোষ্ঠীর ঘাঁটিতে। আফগানিস্তান সীমান্তের কাছে পাকিস্তানের একটি আদিবাসী এলাকায় মার্কিন ড্রোন হানা দেয়। এই হামলায় তিন জঙ্গি নিহত হয়েছেন। আফগান তালিবানের একটি সূত্র জানিয়েছে, হাক্কানি নেটওয়ার্কের সদস্যরা এই হামলার নিশানায় ছিল। বিশেষজ্ঞরা বলছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প জমানায় এই হানা অত্যন্ত ইঙ্গিতবাহী।

পাকিস্তানে মার্কিন ড্রোন হামলার খবর সত্যি হলে এটিই ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর পাকিস্তানের অভ্যন্তরে প্রথম এধরনের হামলা। হোয়াইট হাউসের দায়িত্ব নেওয়ার পর পাকিস্তান এবং আফগানিস্তানে তালিবান ও অন্যান্য জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির দৌরাত্ম্য ঠেকাতে বেশ কিছু পরিকল্পনা করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তারই অঙ্গ হিসাবে পাকিস্তান ভিত্তিক হাক্কানি জঙ্গিগোষ্ঠী দমনে ইসলামাবাদকে নাগাড়ে চাপ দিয়ে চলেছেন ট্রাম্প।

তবে এই হানা নিয়ে অবশ্য পেন্টাগন বা মার্কিন প্রশাসন মুখ খোলেনি। আফগান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় যে ড্রোন হামলা হয়েছে তা নিশ্চিত করেছেন ভূমিপুত্ররা।  ওই এলাকার  মৌলভি মুহিবের নামে একজনের বাড়িতে ড্রোন থেকে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়। এই ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।