ভুয়া বিজ্ঞাপন দিলেই শাস্তি!

ঘটনাটি প্রথম খবরে আসে কিছুদিন আগে প্রো-পাবলিকার রিপোর্টের মাধ্যমে। সেখানে দেখা গিয়েছিল, ‘ইহুদি বিদ্বেষী’ বা ‘যেভাবে ইহুদি হত্যা করবেন’ ঘরানার কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করে বিশেষায়িত বিজ্ঞাপণ সহজেই ফেইসবুকে দেয়া যায়’।

গুগল ফেইসবুক টুইটারে বিদ্বেষপূর্ণ বিজ্ঞাপন।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক, টুইটার এবং সার্চ জায়ান্ট গুগলে উদ্দেশ্যমূলক ও বিদ্বেষপূর্ণ বিজ্ঞাপন এখনো দেওয়া হয়। একইসঙ্গে এগুলো সেসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে পৌঁছেও দেয় মাধ্যমগুলো।তবে বিষয়টি স্পর্শকাতর হলেও মাধ্যমগুরো এখনো এর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে বরং এটিকে আরও প্রসারে কাজ করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সম্প্রতি বেশ কিছু রিপোর্টে উঠে এসেছে, এসব  ব্যবহারকারীদের গুগল, টুইটার ও ফেইসবুকের মত প্ল্যাটফর্মগুলো শুধু যে কঠোরভাবে দমন করছে না তাই নয়, তাদের লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপণ দেয়ার জন্য কিওয়ার্ডসমূহ ও বহাল রেখেছে।ঘটনাটির ব্যাখ্যা হিসেবে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ  দাবি করেছে, ব্যবহারকারীরা এসকল শব্দ তাদের প্রোফাইলের পেশা, শিক্ষাগত যোগ্যতা, বায়ো ও ইন্টারেস্ট হিসেবে ব্যবহার করায় ফেইসবুকের অ্যালগোরিদম সেটি অ্যাড কি-ওয়ার্ড হিসেবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে যুক্ত করে নেয়।

এ সকল টার্মগুলো দ্রুত সরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে তেমন কোনো মন্তব্য কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। তবে তিনটি কোম্পানির ক্ষেত্রেই এগুলো বিজ্ঞাপন দেয়ার শর্তাবলী ভঙ্গ করেছে।